২৪ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, বৃহস্পতিবার

মির্জা ফখরুলকে ‘পড়াশোনা’ করার অনুরোধ তথ্যমন্ত্রীর

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, মার্চ ২৯, ২০১৯, ৮:১৫ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে ‘পড়াশোনা’ করে সরকারের সমালোচনা করার অনুরোধ জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নগরের পাঁচলাইশ থানাধীন সুগন্ধা আবাসিক এলাকার ১ নম্বর সড়কে প্রবর্ত্তক সংঘের নতুন ৬ তলা ৫০০ ছাত্রীর আবাসিক হোস্টেল ‘মৈত্রেয়ী’ ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে শুক্রবার ঢাকার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, রাষ্ট্রের আর কিছু অবশিষ্ট নেই। এখন সম্পূর্ণভাবে মিথ্যার ওপরে, প্রতারণার ওপরে, রাষ্ট্রের সব স্তম্ভগুলোকে ভেঙে দিয়ে, প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভেঙে দিয়ে রাজত্ব করছে সরকার।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উক্ত বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমি ফখরুল সাহেবকে একটু পড়াশোনা করার অনুরোধ জানাই। ঢাকা কলেজে নাকি তিনি পড়াতেন। আমিও শিক্ষক পরিবারের একজন। সেজন্য তার সম্পর্কে আলাদা একটি ধারণা আমার ছিল। কিন্তু তিনি যে পড়াশোনা থেকে অনেক দূরে সেটা বুঝতে পারছি, তিনি গত কয়েকদিন ধরে যে কথাবার্তা বলছেন তা দেখে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের দেশে এখন মাথাপিছু আয় প্রায় ২ হাজার ডলার, উনিশ’শ নয় ডলার। কিছুদিনের মধ্যে ২ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যাবে। পাকিস্তানের চেয়ে আমাদের মাথাপিছু আয় বেশী। পাশের দেশ ভারতের পশ্চিম বঙ্গের মাথাপিছু আয় ১৫শ’, আমি একটু আগে চেক করলাম। ফখরুল সাহেব যাই বলুক না কেন, পাকিস্তানের টেলিভিশনে তাদের বুদ্ধিজীবীরা আক্ষেপ করে বলেছে, বাংলাদেশ আজ সমস্ত কিছুতে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে, অনেক দূর এগিয়ে গেছে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও একই কথা বলেছেন।

‘জাতিসংঘের মহাসচিব, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট, এমনকি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতির প্রশংসা করেছেন। করতে পারেন না শুধু মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।’

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সকাল, দুপুর, বিকাল তিন বেলা টেলিভিশনের সামনে আমাদেরকে গালি দিয়ে তারা (বিএনপি) বলেন, দেশে কথা বলার অধিকার নেই। আমি অনুরোধ জানাবো, আপনারা সমালোচনা করুন। দায়িত্বে থাকলে অবশ্যই সমালোচনা হবে। গাছে আম থাকলে ঢিল পড়বেই। আমরাও চাই সমালোচনা হোক। কিন্তু অন্ধের মত, অজ্ঞের মত সমালোচনা দয়া করে করবেন না। পড়াশোনা করে সমালোচনা করবেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। প্রবর্তক সংঘের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র লালার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন সম্পাদক তিনকড়ি চক্রবর্তী।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সংঘের সহ-সভাপতি প্রফেসর রণজিৎ কুমার ধর, শুলকবহর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোরশেদুল আলম প্রমুখ।