ওসি প্রদীপকে আটকের গুজব: জড়িতদের শণাক্তের চেষ্টা করছে পুলিশ


কক্সবাজার: কক্সবাজারের টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ২ লাখ ইয়াবাসহ বিজিবি ও র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছেন এমন একটি তথ্য লিখে শুক্রবার বিকেলে ফেইসবুকে পোস্ট দেয়া হয়েছে ‘ইয়াবা মুক্ত সমাজ চাই’ নামের একটি আইডি থেকে।

এ ধরনের গুজব যারা ছড়িয়েছে তাদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের একাধিক দল তৎপরতা চালাচ্ছে বলে জানান কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মাসুদ হোসেন।

তিনি বলেন, ফেইসবুকে টেকনাফের ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে নিয়ে মিথ্যা প্রপাগান্ডা ছড়ানো হয়েছে। মূলত টেকনাফের পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানকে প্রশ্নবিদ্ধ করতেই ইয়াবা ব্যবসায়ীরা এই অপপ্রচার ও গুজব ছড়াচ্ছে।

এ ঘটনায় জড়িতদের পাশাপাশি ফেইসবুকে যারা এই মিথ্যা প্রচারণায় উসকানি দিচ্ছে তাদের শনাক্ত করতে পুলিশের একাদিক ইউনিট কাজ করছে বলেও জানান পুলিশ সুপার মাসুদ হোসেন।

প্রসঙ্গত ‘ইয়াবা মুক্ত সমাজ চাই’ নামের একটি আইডি থেকে দেয়া স্ট্যাটাসে উল্লেখ করা হয়, “ “নিখোঁজ সংবাদ!!! টেকনাফ থানার ওসি এখন কোথায়, র‌্যাবের হাতে নাকি বিজিবির হাতে! শুনা যাচ্ছে, ২০০০০০ ইয়াবা ট্যাবলেট বেচাকিনা করার সময় হাতে নাতে ধরা পরে র‌্যাব আর বিজিবির হাতে, এমন কথা শুনা যাচ্ছে টেকনাফের অলিগলিতে। মনে রাখবেন আল্লাহ কাজ আস্তে ধীরে, টেইলার দেখছেন পিকচার আবি বাকি হে ভাই!!!”

এ বিষয়ে শুক্রবার রাতে ওসি প্রদীপের সরকারি মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।