২৪ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, বৃহস্পতিবার

চট্টগ্রামে গণধর্ষণে অভিযুক্তদের সহযোগী গ্রেপ্তার

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০১৯, ২:৫৬ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে গাড়িতে তুলে গণধর্ষণের মামলায় আরো একজনকে গ্রেপ্তার করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ।

বুধবার রাতে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার জলদি গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান।

গ্রেপ্তার মো. শাহাবুদ্দিন (২৪) বাঁশখালীর সরল ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকার নুর হোসেনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, গত ২৭ জানুয়ারি এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে কারে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর অস্ত্রের মুখে তাকে ধর্ষণ করে নিহত শাহাবুদ্দিন এবং গ্রেফতার শ্যামল দে। এরপর ২৮ জানুয়ারি তারা ওই মেয়েটিকে আবার তুলে নেওয়ার চেষ্টা করে। বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে একটি গাড়ি আটক করতে পারলেও তারা পালিয়ে যায়।

ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে একইদিন রাতে চকবাজারের ডিসি রোড এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শ্যামলকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপরই তার তথ্যমতে, আরেক অভিযুক্ত শাহাবুদ্দিনকে ধরতে ফিরিঙ্গিবাজার মেরিনার্স রোডে গেলে সে পুলিশের দিকে গুলি ছোড়ে। পুলিশও তখন পাল্টা গুলি চালায়। পরে সেখানে শাহাবুদ্দিনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়।

কোতোয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান একুশে পত্রিকাকে বলেন, দ্বিতীয়বার মেয়েটিকে ফাঁদে ফেলে ‍পুনরায় ধর্ষণের চেষ্টার সঙ্গে গ্রেপ্তার শাহাবুদ্দিন যুক্ত ছিল। তবে শাহাবুদ্দিন ধর্ষক নয়। সেদিন প্রাইভেট কারটি চালিয়েছিল সে। শাহাবুদ্দিন সেদিন পালিয়ে গেলেও আমরা তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছি।