২৩ মে ২০১৯, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, বুধবার

ট্রাফিক পুলিশ বিশাল বাণিজ্য করছে, প্রমাণ দিতে পারবেন ম্যাজিস্ট্রেট!

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৮, ২০১৯, ৫:৫৭ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: সড়কে আইন প্রতিপালনের দায়িত্বে থাকা ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা ‘বিশাল বাণিজ্য’ করছে বলে অভিযোগ করেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চট্টগ্রাম কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মনজুরুল হক। ট্রাফিক পুলিশের এ অনিয়মের প্রমাণ দিতে পারবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার নগরের ষোলশহর এলজিইডি ভবনে বিআরটিএ আয়োজিত সড়ক নিরাপত্তা ও জনসচেতনতা বৃদ্ধিমূলক সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মনজুরুল হক বলেন, প্রতিদিন চালকদের কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে অভিযোগ পাচ্ছি আমরা। গাড়ির সব কাগজ ঠিক থাকার পরেও মামলা দিচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ। চুক্তি অনুযায়ী ২ হাজার টাকা নিলেও স্লিপে লিখছে ২০০ টাকা। বিশাল পরিমাণে বাণিজ্য হচ্ছে এখানে। আমি প্রমাণ দিতে পারবো।

তিনি বলেন, যাদের হাতে সড়ক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব তাদের এ বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে। তারা যদি সেটা না করে, তারা যদি ধান্দায় লিপ্ত থাকে, বাণিজ্যে লিপ্ত থাকে, তাহলে সড়কে নিরাপত্তা কখনো আসবে না।

সেমিনারে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মাসুম বলেন, আমরা কেউ ভূল-ত্রুটির ঊর্ধ্বে না। এখন এসব অভিযোগ নিয়ে বিচার বিশ্লেষণে যাই, এখানে যদি শুধু ট্রাফিক পুলিশকে দায়ী করা হয়- আমার মনে হয় এটা অন্যায় হবে। সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে শুধু পুলিশ নয়, অনেকের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে। সুতরাং কাউকে দোষারোপ না করে সবাই মিলে কাজ করলেই নিরাপদ সড়ক গড়ে তোলা সম্ভব হবে।

সেমিনারে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাশহুদুল কবীর, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, বিআরটিএর চট্টগ্রাম বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ, জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।