বৃহস্পতিবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

পদ্মা সেতুর ১৪তম স্প্যান বসছে না

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯, ১:১১ অপরাহ্ণ

ঢাকা : আবহাওয়া প্রতিকূল থাকায় পদ্মা সেতুর ১৪তম স্প্যানটির বসানোর কাজ স্থগিত করা হয়েছে। আজ সেতু এই স্প্যানটি বসানোর কথা ছিল। এই স্প্যানটি বসানো হলে দুই প্রান্ত মিলিয়ে আজ প্রায় দুই কিলোমিটারের বেশি সেতু দৃশ্যমান হত বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। সেতু নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ৩৩ হাজার কোটি টাকা।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো করপোরেশন।

জানা গেছে, পদ্মা সেতুতে দুই ধরনের স্প্যান বসবে। নদীর মধ্যে থাকা ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান (সুপার স্ট্রাকচার) যেগুলো মূলত স্টিলের তৈরি। আর নদীর দুই পাড়ে থাকা ভায়াডাক্টের ওপর ৭টি করে ১৪টি রেলওয়ে স্প্যান এবং আরও ৭টি করে ১৪টি রোডওয়ে স্প্যান বসবে যার প্রতিটি তৈরি হবে ৬টি করে আই-গার্ডার দিয়ে।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) সেতুর চতুর্দশ স্প্যান ‘৩-সি’ ভাসমান ক্রেনে মাওয়া কুমারভোগ কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে রওনা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু স্প্যানবহনকারী ক্রেনটি কন্সট্রাকশন ইয়ার্ডে অপেক্ষায় থাকতে দেখা যায়। পরে আবহাওয়া প্রতিকূলে থাকায় আজকের মতো কার্যক্রম স্থগিত করে কর্তৃপক্ষ।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো।

একুশে/এসসি