মঙ্গলবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য

প্রকাশিতঃ রবিবার, জুলাই ৭, ২০১৯, ১:৫৯ অপরাহ্ণ

ঢাকা : নবগঠিত পাবনা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য হয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলিবর্ষণ ঘটনার মামলার রায়ে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত ঈশ্বরদীর তিন নেতা। গত ৪ জুলাই পাবনা জেলা বিএনপির ৪৩ সদস্য বিশিষ্ট এই কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক পৌরসভার মেয়র মকলেছুর রহমান বাবলু, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টু ও ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি একেএম আক্তারুজ্জামান আক্তার। তিনজনের মধ্যে বাবলু ও আক্তারুজ্জামান কারাগারে এবং জাকারিয়া পিন্টু পলাতক রয়েছেন।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি প্রসঙ্গে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এবং পাবনার পাবলিক প্রসিকিউটার অ্যাড. আক্তারুজ্জামান মুক্তা প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন, দণ্ডপ্রাপ্তদের কমিটির সদস্য করে বিএনপি যে সন্ত্রাসী দল তা আবারও প্রমাণ করলো। তিনি বলেন, বিএনপি গণতন্ত্রের চর্চাও করে না এবং গণতন্ত্র মানেও না।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৪ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলের নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলিবর্ষণ করা হয়। এ বিষয়ে মামলার রায় ঘোষণা করা হয় গত ৩ জুলাই। পাবনা স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক এবং অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ রুস্তম আলী এ রায় ঘোষণা করেন। মামলায় ৯ জনকে ফাঁসি, ২৫ জনকে যাবজ্জীবন ও ১৩ জনকে ১০ বছরের সাজা হয়েছে। ৫২ আসামির মধ্যে পাঁচজন মারা গেছেন। ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত ৯ আসামির মধ্যে রয়েছে বাবলু, পিন্টু ও আক্তারুজ্জামানের নাম। নবগঠিত জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটিতে ওই তিনজন সদস্য মনোনীত হয়েছেন।

একুশে/এসসি