শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

মেয়রের তদারকি, দিনের ময়লা দিনেই শেষ

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, আগস্ট ১৩, ২০১৯, ১২:০২ পূর্বাহ্ণ

হিমাদ্রী রাহা : রাত তখন ৯ টা। ডিসি বাংলোয় আসলেন মেয়র আ জ ম নাছির। উদ্দেশ্য বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়। কিন্তু সেখানেও যেন এতটুকুন অবসর নেই তাঁর। ওয়াকিটকি হাতে ব্যস্ত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা মনিটরিংয়ে।

যদিও রাত ৮টার মধ্যেই প্রধান সড়কগুলোতে জবাইকৃত গরুর বর্জ্য অপসারণ শেষ, তারপরও মেয়রের চুলচেরা তদারকি। নগরবাসীকে দেয়া প্রতিশ্রুতি রাখতে বদ্দপরিকর।

বলতে গেলে বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় এবার নতুন রেকর্ড গড়লো সিটি কর্পোরেশন। লক্ষ লক্ষ কোরবানীর পশু জবাই হলেও দিনের ময়লা দিনেই শেষ। নগরীর প্রধান সড়কের কোথাও কোনো ময়লার ছিঁটেফোটাও নেই। অথচ বিগত সময়গুলোতেও এতো তাড়াতাড়ি কখনো বর্জ্য অপসারণ হয়নি। অবশ্য গেল বছর মক্কা থেকে মনিটরিং করেও এই কাজে সাফল্য দেখিয়েছেন মেয়র।

এ প্রসঙ্গে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন একুশে পত্রিকাকে বলেন, দেখুন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কমিটি থাকা সত্ত্বেও আমি নিজে পুরো বিষয়টা তদারকি করেছি। যার ফলে বর্জ্য অপসারণ ত্বরিত গতিতে হয়েছে। ৭০ লক্ষ নগরবাসীর প্রতিনিধি আমি। এতো বড় কাজে সামান্যতম অবহেলা যদি হয় তার জন্য আমিই দায়ী থাকবো। নগরবাসীর প্রতি দায়বদ্ধতা থেকেই আমি নিজেই বর্জ্য ব্যবস্থাপনার পুরো বিষয়টা মনিটরিং করেছি।

এজন্য ৪১ টি ওয়ার্ডকে ৪টি সেলে ভাগ করে ৪জন কাউন্সিলরকে দায়িত্ব দিই। ৪ হাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মীর সহায়তায় ৩শ’ ট্রাকে প্রায় ৭ হাজার টন বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে। বলেন মেয়র।