শনিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩০ ভাদ্র ১৪২৬

কেএসআরএমের এলাকা নজরদারিতে পিএইচপির ড্রোন!

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯, ৯:৩২ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: দেশের শীর্ষস্থানীয় ইস্পাত কারখানা কেএসআরএমের স্টিল প্ল্যান্ট এলাকায় ড্রোন উড়িয়ে নজরদারি চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে শিল্পগ্রুপ পিএইচপির বিরুদ্ধে।

গত ৭ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪টার দিকে কেএসআরএমের স্টিল প্ল্যান্ট এলাকায় একটি ড্রোন উড়তে দেখেন নিরাপত্তাকর্মীরা। এ সময় ওই ড্রোনের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করেন কেএসআরএমের নিরাপত্তাকর্মীরা। কিছুক্ষণ পর তারা দেখতে পান ড্রোনটি পিএইচপির মালিকানাধীন পিএইচপি ফ্লোট গ্লাস কারখানায় অবতরণ করেছে।

এ বিষয়ে গত ৮ সেপ্টেম্বর সীতাকুণ্ড থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন কেএসআরএমের সিকিউরিটি ইনচার্জ মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম। এভাবে ড্রোন উড়ানোর ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশের পাশাপাশি এতে পিএইচপির বিরুদ্ধে জীবনঝুঁকি সৃষ্টির অভিযোগ আনা হয়।

এ প্রসঙ্গে কেএসআরএম লিমিটেডের জিএম (কারখানা) শাখাওয়াত হোসেন একুশে পত্রিকাকে বলেন, ড্রোনটি আমাদের সীমানায় আকাশের উপর উড়ছিল, প্রথমে এটা খেয়াল করিনি আমরা। পরে ড্রোনটি নিচে নামার সময় আমাদের নজরে আসে। দেখলাম যে ড্রোনটি পিএইচপির সীমানায় গিয়ে নেমেছে।

তিনি বলেন, ড্রোনটি আমাদের সীমানার উপর উড়ানোর কারণ আমরা বুঝতে পারছি না। তবে সন্দেহ করছি, তারা আমাদের উপর নজরদারি চালিয়েছে। এটা আমাদের নিরাপত্তার জন্য বড় হুমকি। এজন্য আমরা থানায় জিডিও করেছি। আশা করছি, পুলিশ তদন্ত করে রহস্যটা বের করে আনবে।

অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানার জন্য মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পিএইচপির পরিচালক মোহাম্মদ মহসিনের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হয়, তবে সাংবাদিক পরিচয় পেয়ে তিনি ফোন কেটে দেন। এরপর পিএইচপির মুখপাত্র দিলশাদ আহমেদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি একুশে পত্রিকাকে বলেন, আমরা এ বিষয়ে কোন কিছু জানি না। একটা প্রোগ্রাম নিয়ে আমরা ব্যস্ত আছি।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি দেলওয়ার হোসেন বলেন, বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।