সাংবাদিকদের আয়কর নিয়ে আপত্তি, তথ্যমন্ত্রীকে দেখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী


ঢাকা: সংবাদপত্র ও বার্তা সংস্থাগুলোর কর্মীদের নবম বেতন কাঠামোর রোয়েদাদ গেজেটের কয়েকটি ধারা নিয়ে সাংবাদিকদের আপত্তির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদকে দায়িত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার গণভবনে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী প্রধানমন্ত্রীকে জানান, নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড রোয়েদাদ গেজেটে গ্র্যাচুইটি দুটির স্থলে একটি করা এবং আয়কর সাংবাদিকদের উপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এ প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখানে সংবাদপত্রের মালিকরা আছেন। তাদের তো টাকার অভাব নেই। সাংবাদিকদের কল্যাণের বিষয় তো তাদেরও ভাবতে হবে। আমি এ বিষয়টি দেখতে তথ্যমন্ত্রীকে দায়িত্ব দিয়ে দিলাম।

দীর্ঘদিন ঝুলে থাকার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর তথ্য মন্ত্রণালয় ‘নবম মজুরি বোর্ড রোয়েদাদ’ গেজেট প্রকাশ করে।

গেজেট প্রকাশের পর থেকে কিছু সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, গেজেটে কয়েকটি অসঙ্গতি রয়েছে। তারা বলছেন, এতদিন পর্যন্ত দুটি গ্রাচ্যুইটি পেয়ে আসছিল সাংবাদিকরা। একই ভাবে আয়কর পরিশোধ করে আসছিল মালিক কর্তৃপক্ষ। কিন্তু নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড রোয়েদাদ গেজেটে গ্র্যাচুইটি দুটির স্থলে একটি করা এবং আয়কর সাংবাদিকদের উপর চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।