সোমবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে স্থল অভিযান শুরু তুরস্কের

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১০, ২০১৯, ৩:২৩ অপরাহ্ণ


রাস আল-আইন (সিরিয়া) : সিরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে কুর্দি নিয়ন্ত্রিত বিভিন্ন এলাকায় তুরস্ক বাহিনী ব্যাপক স্থল অভিযান শুরু করেছে। মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নেয়ায় বিমান বাহিনীর সহযোগিতায় এ স্থল অভিযান শুরু করা হয়। খবর এএফপি’র।

প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোগান বুধবার টুইটারে এ হামলা শুরুর ঘোষণা দেয়ার পরপরই সীমান্ত বরাবর কুর্দিদের অবস্থান লক্ষ্য করে বিমান ও কামান হামলা চালানো হয়। এতে হাজার হাজার বেসামরিক নাগরিক তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, বিমান ও কামান হামলার পর সন্ধ্যার দিকে এ সীমান্ত বরাবর স্থল অভিযান শুরু করা হয়।

এদিকে এ অভিযান শুরুর প্রেক্ষিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তুরস্কের অর্থনীতি একেবারে ধ্বংসের হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

তিনি রোববার সীমান্ত থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়ার পর এ হামলা চালানো হবে বলেই মনে করা হয়। এ ঘটনায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ব্যাপক নিন্দার ঝড় ওঠে এবং জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে জরুরি বৈঠকের কথা রয়েছে।

এদিকে আরব লীগ জানিয়েছে, তারা আগামী ১২ অক্টোবর কায়রোতে এ বিষয়ে জরুরি বৈঠকের আয়োজন করেছে।
ব্রিটিশ ভিত্তিক মানবাধিকার বিষয়ক সিরীয় পর্যবেক্ষণ গ্রুপ (এসওএইচআর) জানায়, তুরস্কের অভিযান শুরুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে কুর্দি নেতৃত্বাধীন সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস (এসডিএফ)-এর ১৬ সদস্য নিহত হয়েছে।

এসওএইচআর ও এসডিএফ তেল আবাদ নগরীর কাছে ব্যাপক সংর্ঘষের কথা জানিয়েছে।

তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় টুইটার বার্তায় জানায়, তাদের বাহিনী এ পর্যন্ত কুর্দি ‘সন্ত্রাসী গ্রুপের’ ১৮১ অবস্থান লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে।

তুরস্কপন্থী সিরিয়ান মিলিট্যান্ট গ্রুপের মুখপাত্র এএফপি’কে বলেন, তেল আবাদে স্থল অভিযান শুরু হয়েছে।

তুর্কি সংবাদমাধ্যম জানায়, বিশেষ বাহিনী ও সাঁজোয়া গাড়ি বহর সীমান্ত বরাবর বিভিন্ন এলাকায় ঢুকে পড়েছে।