সোমবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬

‘যুক্তির মাধ্যমেই অমানবিক ঘটনা এড়ানো সম্ভব’

প্রকাশিতঃ সোমবার, অক্টোবর ২১, ২০১৯, ৬:১৩ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: যুক্তির মাধ্যমেই অমানবিক ঘটনা এড়ানো সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) আমেনা বেগম।

সোমবার সকালে নগরীর শিল্পকলা একাডেমীতে স্কুল কমিউনিটি পুলিশিং বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০১৯- এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উত্তর বিভাগ উক্ত প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

শিক্ষার্থীদের প্রতি পুলিশ কর্মকর্তা আমেনা বেগম বলেন, বুয়েটে যে ঘটনা ঘটেছে এমন ঘটনা যেন আর না ঘটে।আজকে মায়ের হাতে সন্তান খুন হচ্ছে। ছেলেকে মেরে ফেলছে বাবা। যুক্তির মাধ্যমেই এ ধরনের অমানবিক বিষয়গুলো এড়ানো সম্ভব। সেজন্য বিতর্ক প্রয়োজন।

বিতর্কটাকে খেলার মতো করে দেখে এটাকে উপভোগ করতে শিক্ষার্থীদের প্রতি পরামর্শ দেন তিনি।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) আমেনা বেগম বলেন, এক সময় ছিল পুলিশ শাসকের বন্ধু। এখন কিন্তু আমরা জনগণের বন্ধু। আমরা ছাত্র-ছাত্রীদের মনে স্থান করে নিতে চাই। আমরা ছাত্রাবস্থায় যে পুলিশকে দেখেছি, আমরা তোমাদের সামনে সেই পুলিশকে চাই না।

শিক্ষার্থীদের প্রতি তিনি বলেন, আজকের অনুষ্ঠানের মূল উদ্দেশ্যে হচ্ছে, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মনের মধ্যে আমরা স্থান করে নিতে চাই। আমরা চাই তোমাদের বন্ধু হতে। আমরা চাই তোমাদের মতো সুনাগরিকদের মনে স্থান করে নিতে।

স্কুল বিতর্ক প্রতিযোগিতা আয়োজনের জন্য চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাককে ধন্যবাদ জানান আমেনা বেগম।

অনুষ্ঠানে পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় বসাক বলেন, বিতর্কে যদি আমাদের মানবিকবোধ জাগে, তাহলে দেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা জঙ্গি ও মাদককে আমরা সমাজ থেকে সমূলে উৎপাটন করতে পারবো।

তিনি বলেন, বাংলাদেশকে আমরা কারো দয়া বা দান হিসেবে পাইনি। পাকিস্তানের মতো জারজ জাতি থেকে আমরা দেশকে মুক্ত করেছি, স্বাধীনতা অর্জন করেছি। আগামীকে একইভাবে জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে আমরা যুদ্ধে লড়ব। এই যুদ্ধের সারথি তোমরা, যারা আমার সামনে আছো। তোমরা আমাদেরকে সহায়তা করবে এবং আমরা এক সাথে কাজ করবো।

শিক্ষার্থীদের প্রতি বিজয় বসাক বলেন, যেই মুখে আমরা মা ডেকেছি, সেই মুখে আমরা মাদক নিতে পারি? উপস্থিত শিক্ষার্থীরা জবাব দেন, ‘না’।

বিজয় বসাক বলেন, যে মুখে ডাকি মা, সেই মুখে মাদককে বলি না। আমরা বিশ্বাস করি, আমরা যে মুখে মা ডেকেছি, সেই মুখে মাদক গ্রহণ করবো না। কারণ মাদক ও মাকে আমরা একসাথে গ্রহণ করতে পারি না।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাত্রীদের প্রতি পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় বসাক বলেন, আজকে এখানে যে আমেনা বেগম স্যারকে দেখছো, তিনি এক দিনে আজকের অবস্থানে আসেননি। ধীরে ধীরে তৈরী হয়েছেন। আমেনা বেগম স্যারকে সামনে রেখে তোমরা এগিয়ে যাবে। আমেনা বেগম স্যারের মতো হওয়ার চেষ্টা করো। শুধু পুলিশ অফিসার হিসেবে নয়, একজন অনুকরণীয় মানুষ হিসেবে তাকে অনুসরণ করার চেষ্টা করবে। আমি বিশ্বাস করি, তোমরাও একদিন আমেনা বেগম স্যারের মতো সফল নারী হবে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (পাঁচলাইশ জোন) দেবদূত মজুমদারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের চট্টগ্রাম কেন্দ্রের জিএম নিতাই কুমার ভট্টাচার্য, চট্টগ্রাম মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং-এর সদস্য সচিব অহিদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে চট্টগ্রামের কর কমিশনার ও কথাসাহিত্যিক বাদল সৈয়দ, চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (উত্তর) মিজানুর রহমান, সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ বোস্তামী জোন) পরিত্রাণ তালুকদার ও বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ ও ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত আজ সোমবার এই প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ও প্রথম পর্যায়ের বিতর্ক অনুষ্ঠিত হয়। আগামীকাল মঙ্গলবার প্রতিযোগিতার ফাইনাল রাউন্ড ও সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

দুইদিনের এ আসরে সিএমপি’র উত্তর বিভাগের চারটি থানা এলাকার ৮টি স্বনামধন্য স্কুল অংশগ্রহণ করছে। উক্ত আয়োজনে সহযোগিতা দিচ্ছে ‘দৃষ্টি চট্টগ্রাম’।