মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

‘বুলবুল’ আতংক, থানছি ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিতঃ শনিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৯, ৫:০২ অপরাহ্ণ

বান্দরবান প্রতিনিধি : ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে চট্টগ্রামে ৯ নম্বর মহাবিপদসংকেতের কারণে বান্দরবানের দুর্গম থানচি উপজেলার বিভিন্ন পর্যটন এলাকা রেমাক্রী নাফাকুম, আমিয়াখুম, ভেলা পাথর, বড় পাথর ভ্রমণের উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে প্রশাসন। আজ শনিবার জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে থানচি উপজেলা প্রশাসন।

প্রশাসন ও সীমান্তবাহিনী বিজিবি সূত্রে জানা গেছে, টানা তিনদিনের ছুটিতে থানচি উপজেলার পর্যটন এলাকা আমিয়াখুম, নাফাকুম, ভেলাখুম, বড়পাথর সৌন্দর্য পর্যটন দেখতে প্রচুর পর্যটক থানচি ভ্রমণে আসছেন। কিন্তু ৯ নম্বর সংকেতের কারণে দুর্গম এলাকার নৌপথে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত না হওয়ায় পর্যটকদের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলোতে ভ্রমণে যাওয়া কিংবা অবস্থানে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

বর্তমানে রেমাক্রী ও নাফাকুমে প্রায় ৯০০’রও অধিক পর্যটক আটকা রয়েছে। তাদেরকেও নিরাপদে সেখান থেকে নিয়ে আসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন।

এবিষয়ে নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল হক মৃদুল জানান, ঘূর্ণিঝড় বুলবুল-এর কারণে থানচি উপজেলার পর্যটন ভ্রমণ স্থানগুলোকে জেলা প্রশাসনে অনুমতিতে সাময়িকী জন্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। বর্তমানে সেখানে যারা রয়েছে সীমান্তরক্ষী বিজিবির মাধ্যমে তাদেরকেও নিয়ে আসা হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড় বুলবুল বিপদসংকেত থাকা পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।