শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৬

নবনির্বাচিত এমপি মোছলেমের সাক্ষাৎ, নগরে ভোট বাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর সন্তোষ

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১৬, ২০২০, ৪:০৫ অপরাহ্ণ

ঢাকা : চট্টগ্রাম-৮ আসনের উপ নির্বাচনে চট্টগ্রাম নগরে আওয়ামী লীগের অপেক্ষাকৃত ভোট বৃদ্ধি পাওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার দুপুর ২ টার দিকে চট্টগ্রাম ৮ আসন থেকে সরকারদলীয় নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দীন আহমেদ গণভবনে ফুল নিয়ে দেখা করতে গেলে প্রধানমন্ত্রী এই সন্তোষ প্রকাশ করেন। দুপুর ২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত একঘণ্টাব্যাপী সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রী উপ নির্বাচনকে সামনে রেখে চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের ঐক্যবদ্ধ ভূমিকারও প্রশংসা করেন।

এসময় চট্টগ্রাম সিটি মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, সহ সভাপতি শাহজাদা মহিউদ্দিন ও বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জি উপস্থিত ছিলেন।

সাক্ষাতে প্রধানমন্ত্রীর সাথে কী কথা হয়েছে জানতে চাইলে নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দীন আহমেদ একুশে পত্রিকাকে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে অত্যন্ত হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে আমাদের কথা হয়েছে। আমার জয়লাভে তিনি অত্যন্ত খুশী। একই সাথে তিনি উপ নির্বাচনে নগরে অপেক্ষাকৃত ভোট বাড়ায় এবং এক্ষেত্রে চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের ঐক্যবদ্ধ ভূমিকার প্রশংসা করেন। আগামীতেও ঐক্যবদ্ধভাবে সমস্ত অপশক্তিকে মোকাবিলা করে দল ও সরকারের হাত শক্তিশালী করার পরামর্শ দিয়ে ঐক্যবদ্ধ নেতৃত্বের মাধ্যমে চট্টগ্রামে ভবির্ষতে আরো উন্নয়ন করার আশ্বাস দেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।

এ বিষয়ে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে একুশে পত্রিকাকে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের অত্যন্ত আন্তরিক পরিবেশে কথা হয়েছে। তিনি আমাদের পেয়ে উৎফুল্ল হয়েছেন। নিজে ডেকে নিয়ে ছবি তুলেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এই নির্বাচনের মাধ্যমে আবারও প্রমাণিত হয়েছে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধ থাকলেও কারো শক্তি নেই আওয়ামী লীগকে হারানোর। ইভিএম পদ্ধতিতে শতভাগ স্বচ্ছতার মাধ্যমে অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফলে আওয়ামী লীগের গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সন্তোষ জানান প্রধানমন্ত্রী।-বলেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রাম-৮ আসনে ভোটার রয়েছেন চার লাখ ৭৪ হাজার ৪৮৫। এর মধ্যে ভোট দিয়েছেন এক লাখ আট হাজার ৫৮১ জন। সে হিসেবে উপ-নির্বাচনে শতকরা ২২ দশমিক ৯৪ শতাংশ ভোট পড়েছে। এর মধ্যে সিটি কর্পোরেশনভুক্ত ১০১ কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ১০ দশমিক ৩৩ শতাংশ। বোয়ালখালী উপজেলার ভোটার সংখ্যা এক লাখ ৬২ হাজার ৮৯৩। যার মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৫৯ হাজার ৫২২ জন। সে হিসেবে ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশ মানুষ গতকাল উপ-নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোছলেম উদ্দিন পেয়েছেন ৫১ হাজার ১৭ ভোট। যা মোট প্রদত্ত ভোটের ৪৬ দশমিক ৯৮ শতাংশ। বিপরীতে বোয়ালখালীতে বিএনপি প্রার্থী ভোট পেয়েছেন মাত্র ছয় হাজার ৫০৪ ভোট। যা মোট প্রদত্ত ভোটের পাঁচ দশমিক ৯৯ শতাংশ। তবে মহানগরের কেন্দ্রগুলোতে তুলনামূলক ভালো করেছে বিএনপি। ১০১ কেন্দ্রে নৌকার প্রার্থীর ৩৬ হাজার ২২৯ ভোটের বিপরীতে ধানের শীষ পেয়েছে ১১ হাজার ৪৩১ ভোট। যা মোট প্রদত্ত ভোটের ১০ দশমিক ৮৯ শতাংশ। এছাড়া গ্রাম ও শহর মিলিয়ে মোট ভোটার অনুপাতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী পেয়েছেন ১৮ দশমিক ৬৭ শতাংশ ভোট। অপরদিকে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী আবু সুফিয়ান পেয়েছেন মাত্র ৩ দশমিক ৮ শতাংশ ভোট।