রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১ ফাল্গুন ১৪২৬

‘বাংলাদেশে দুর্নীতি কমেনি, দুদকের বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগ’

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৩, ২০২০, ২:৩৪ অপরাহ্ণ


ঢাকা: ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের (টিআই) ‘দুর্নীতির ধারণা সূচক ২০১৯’ এ বাংলাদেশের অবস্থান এক ধাপ ওপরে উঠলেও কমেনি দুর্নীতির পরিমাণ। এবারের ধারণা সূচকে বিশ্বের ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪তম, যা ২০১৮ সালে ছিল ১৩তম।

আজ বৃহস্পতিবার ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই) সারা বিশ্বে একযোগে দুর্নীতির ধারণা সূচক ২০১৯ প্রকাশ করেছে। বেলা ১১টায় রাজধানীর ধানমন্ডির মাইডাস সেন্টারে টিআইবি কার্যালয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশের (টিআইবি) নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান এ প্রতিবেদনটি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির ক্রমানুসারে আমরা এক ধাপ উন্নতি করলেও আমাদের স্কোর বাড়েনি। আগের বছর স্কোর ছিল ২৬, এবারও তাই রয়ে গেছে। স্কোরটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অন্য কেউ হয়তো বেশি খারাপ করেছে, তাই আমরা এক ধাপ এগিয়েছি। এতে আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই। দুর্নীতির ভালো স্কোর করার মতো আইনি ও কাঠামোগত সক্ষমতা আছে। কিন্তু প্রয়োগের ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতার জন্যই স্কোরে এগোতে পারছে না বাংলাদেশ। ‘

তিনি আরও বলেন, ‘দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধেও দুর্নীতির অভিযোগ এসেছে।’

এ ছাড়াও টিআইবির চেয়ারম্যান সুলতানা কামাল বলেন, ‘বাংলাদেশের অর্থনীতি ভালো করছে। কিন্তু এর সুফল ভালোভাবে দিতে পারছি কি না, সেটাই বড় প্রশ্ন। দুর্নীতি না থাকলে আরও উন্নতি হতো। ‘

বাংলাদেশের সঙ্গে একই অবস্থানে রয়েছে আরও ছয় দেশ। এই ছয় দেশ হচ্ছে-ইরান, হন্ডুরাস, অ্যাঙ্গোলা, গুয়াতেমালা, মোজাম্বিক ও নাইজেরিয়া।