বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬

ভাষা শহীদদের প্রতি সুনামগঞ্জের বিচার বিভাগের শ্রদ্ধা

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০, ৩:৩৬ অপরাহ্ণ


সুনামগঞ্জ: যাদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে বাঙালি পেয়েছিল ভাষার অধিকার, শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে তাদের স্মরণ করেছে সুনামগঞ্জের বিচার বিভাগ।

একুশের প্রথম প্রহরে সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে যান জেলা ও দায়রা জজ ওয়াহিদুজ্জামান শিকদার।

এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন সুনামগঞ্জের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এ জি এম আল মাসুদ, অতিরিক্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কুদরত ই এলাহী, যুগ্ম জেলা ও সেশনস জজ সাইফুল ইসলাম এবং অনান্য বিচারক ও ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ।

প্রসঙ্গত, ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মিছিলে পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠীর নির্দেশে পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারান সালাম, রফিক, বরকত, শফিউরসহ নাম না জানা অনেকে।

এরপর বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষার স্বীকৃতি দেয় তৎকালীন পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী। ভাষা আন্দোলনের ধারাবাহিকতায়ই ১৯৭১ সালে সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আসে বাংলাদেশের স্বাধীনতা।

১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর ইউনেস্কোর এক ঘোষণায় ২১ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পায়।

‘একুশ মানে মাথা নত না করা’ এই প্রত্যয়ে নানা আয়োজনে শুক্রবার শ্রদ্ধার সাথে শহীদদের স্মরণ করছে পুরো বাংলাদেশ।

রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ১৯৫২ সালের এই দিনে বাঙালির রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল রাজপথ, যার ধারাবাহিকতায় অর্জিত হয় স্বাধীনতা।

বাঙালির এই আত্মত্যাগের দিনটি এখন রাষ্ট্রীয় সীমানার গণ্ডি ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালিত হচ্ছে সারা বিশ্বে।

বাঙালির ভাষার সংগ্রামের একুশ এখন বিশ্বের সব ভাষাভাষীর অধিকার রক্ষার দিন।