বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

পারকিতে ফের অনৈতিক কাজ, ১২ তরুণ-তরুণী আটক

প্রকাশিতঃ সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২০, ৮:৪৮ অপরাহ্ণ

 

আনোয়ারা প্রতিনিধি (চট্টগ্রাম) : আনোয়ারার পর্যটন কেন্দ্র পারকি সমুদ্র সৈকত এলাকায় আবাসিক হোটেল ‘পারকি রিসোর্ট’- এ আবারও অসামাজিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগে ১২ তরুণ-তরুণীকে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ২টায় কর্ণফুলী থানার একটি টিম অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

আটককৃতদের সম্পর্কে জানতে চাইলে কর্ণফুলী থানার এসআই মনিরুল ইসলাম বলেন, নাম ঠিকানা কিছুই দেওয়া যাবে না। আপনারা এসব ডেপুটি পুলিশ কমিশনার হামিদুল আলম থেকে জেনে নিন।

এ প্রসঙ্গে কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. ইসমাইল হোসেন একুশে পত্রিকাকে বলেন, দুপুর ২টার দিকে কর্ণফুলী থানাধীন পারকি রিসোর্ট-এ অভিযান চালিয়ে ৬জন তরুণ ও ৬জন তরুণীকে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত অবস্থায় আটক করা হয়। এখানে ১২জন তরুণ-তরুণীর মধ্যে ১১জনই শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পারকি এলাকার জালালের আবাসিক হোটেল ‘পারকি রিসোর্ট’ কৌশল পরিবর্তন করে তারা এসব অনৈতিক কাজ চালিয়ে আসছিল। অনৈতিক কাজের দালালচক্র কর্ণফুলী থানাধীন বন্দর পুলিশ ফাঁড়িকে মাসোহারা দিয়ে এসব অনৈতিক কাজ চালান বলেও জানান স্থানীয়রা। স্থানীয়রা বিভিন্ন মাধ্যমকে এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে অভিযোগ জানালে পুলিশ এসে লোক দেখানো অভিযান চালিয়ে কয়েকজনকে আটক করলেও আবার চালু হয় বলে জানান স্থানীয়রা।

প্রসঙ্গত, পারকি সৈকতে বেড়াতে আসা কোনো পর্যটক রাত্রিযাপন না করলেও এখানে পারকি রিসোর্ট নামে গড়ে তোলা হয়েছে আধুনিক আবাসিক হোটেল। এসব হোটেলে বিভিন্ন সময় অসামাজিক কার্যকলাপ সংঘটিত হয় বলে প্রচুর অভিযোগ রয়েছে। গত ৫ মে অভিযান চালিয়ে অসামাজিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ছয় তরুণ-তরণীকে আটক করেছিল উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এরপর কিছু দিন যেতে না যেতে আবারও অসামাজিক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যায় পারকি রিসোর্টটি। এরপর গত ১২ অক্টোবর বিকালে আবারও পাঁচ জোড়া তরুণ-তরুণী আটক করেছিল কর্ণফুলি থানা পুলিশ। এদের মধ্যে একজন নবম শ্রেণির ছাত্রীও ছিল।

একুশে/জেএ/এআর