বুধবার, ১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬

দিল্লিতে নিহত বেড়ে ২০, সেনা মোতায়েনের আহ্বান কেজরিওয়ালের

প্রকাশিতঃ বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২০, ২:২২ অপরাহ্ণ


দিল্লি: দিল্লিতে সিএএ বিরোধী বিক্ষোভের ঘটনায় ছড়িয়ে পড়া সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২০ জনে। এমতাবস্থায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সেনাবাহিনী নামানো দরকার বলে জানিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

বুধবার সকালে এক টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, এই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে তিনি আর্জি জানাবেন। দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসুক এটাই চান তিনি।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সারা রাত ধরে পুলিশসহ অনেকের সঙ্গেই যোগাযোগ রেখেছেন তিনি। পরিস্থিতি যে আশঙ্কার সে কথাও উল্লেখ করেছেন কেজরিওয়াল। তার কথায়, পুলিশ সবরকম চেষ্টা সত্ত্বেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছে না। তাই সেনা নামানোর কথা বলেছেন তিনি। পাশাপাশি অন্যান্য জায়গাতেও কারফিউ জারি করার কথা বলেছেন তিনি।

এদিন সকালেই হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, সহিংসতার ঘটনায় এখন পর্যন্ত অন্তত ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে আরও প্রায় ২৫০-র বেশি। এদিকে নিহতদের বেশিরভাগেরই গুলির আঘাতে মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে দিল্লিবাসীকে শান্ত থাকার আবেদন জানিয়েছেন কেজরিওয়াল। রাজধানীর পরিস্থিতি নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে কথাও বলেন তিনি। দিল্লির যে এলাকাগুলোতে সহিংসতা হয়েছে ওই এলাকার বিধায়কদের সঙ্গে কথা বলেছেন কেজরিওয়াল। এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রাখতে সচেষ্ট হতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বাইরে থেকে কেউ ঢুকে যাতে দিল্লির পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত করতে না পারে সে ব্যাপারে প্রশাসনকে ব্যবস্থা নিতেও বলেছেন কেজরিওয়াল।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবারই দিল্লির মৌজপুর, জাফরাবাদ, চাঁদবাগ, কারাওয়াল নগরে কারফিউ জারি করে প্রশাসন। নামানো হয় ৩৫ কোম্পানি প্যারামিলিটারিও। তবে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চাঁদবাগ এলাকা ফের উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এসময় কয়েকশো মানুষের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।