শনিবার, ১১ এপ্রিল ২০২০, ২৮ চৈত্র ১৪২৬

মুজিববর্ষ পালনের নামে চাঁদাবাজির সুযোগ দেয়া হবে না : চট্টগ্রামের এসপি

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০, ৭:২৬ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম: মুজিববর্ষ পালনের নামে কাউকে চাঁদাবাজি করার সুযোগ দেওয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম রশিদুল হক।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রস্ততি সভায় তিনি এ কথা বলেন।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম রশিদুল হক বলেন, মুজিববর্ষ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সর্বোচ্চ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে। মুজিববর্ষ পালনের নামে কেউ চাঁদাবাজি করার সুযোগ পাবে না।

সভায় জানানো হয়, দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় ও আড়ম্ভরপূর্ণ পরিবেশে উদযাপনের লক্ষ্যে নগরের সার্কিট হাউজ থেকে জেলা শিল্পকলা একাডেমি পর্যন্ত র‌্যালির আয়োজন করা হয়েছে। এর পর জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হবে। জেলা প্রশাসনের এ কর্মসূচির সাথে সঙ্গতি রেখে উপজেলা পর্যায়ে এ ধরণের কর্মসূচি পালন কারা হবে। জেলা প্রশাসন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ অনুষ্ঠানমালা পর্যবেক্ষণ করবেন।

আরো জানানো হয়, জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে জাতির জনকের জীবনী, ৭ মার্চের ভাষণ প্রচার ও ডকুমেন্টারি প্রচার করবে জেলা তথ্য অফিস। এছাড়াও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে কলেজিয়েট স্কুলে খেলার আয়োজন করবে জেলা শিক্ষা অফিস। ১৭ মার্চ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের শতভাগ উপস্থিত থাকার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন।

দিবসটি উপলক্ষে কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে দেওয়াল লিখন, সপ্তাহব্যাপী চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রতিযোগিতা, কলেজ ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের রচনা প্রতিযোগিতা, ভবগুড়ে শিশুদের মাঝে উন্নত খাবার পরিবেশন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১০০ পাউন্ড এর কেক কাটার প্রস্ততি রয়েছে। এছাড়া র‌্যালি শেষে নগরের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে ২০২০ জন শিক্ষার্থীকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাজে সজ্জিত করা হবে। নগরের বিভিন্ন মসজিদ, জমিয়াতুল ফলা ও বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয় দোয়া-মোনাজাত করা হবে। বিকেলে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সাথে সমন্বয় করে লাইভ প্রোগ্রাম দেখানো হবে।

সভায় ট্রাক মালিক সমিতির সভাপতি মো. আবদুল মান্নান জানান, সমিতির পক্ষ থেকে জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে তারা ট্রাকের মাধ্যমে র‌্যালি করবেন। এসময় উপস্থিত সকলের হাতে দুটি করে ছোট জাতীয় পতাকা থাকবে। এভাবে তারা নগরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করবেন।

সভায় অন্যদের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ কামাল হোসেন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মাধবী বড়ুয়া, জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা, জেলা তথ্য অফিসের উপপরিচালক সাঈদ হাসান, জেলা জনশক্তি ও কর্মসংস্থান দপ্তরের উপপরিচালক মোহাম্মদ জহিরুল আলম মজুমদার, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মো. শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহম্মেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।