শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বাধার মুখে বন্ধ আকিজের ‘করোনা’ হাসপাতাল নির্মাণের কাজ

প্রকাশিতঃ শনিবার, মার্চ ২৮, ২০২০, ৫:৪৭ অপরাহ্ণ


ঢাকা : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকায় আকিজ গ্রুপের হাসপাতাল নির্মাণের কাজে বাধা দিয়েছেন স্থানীয় কাউন্সিলর ও কিছু ব্যক্তি। আজ শনিবার দুপুর একটার দিকে শ দুয়েক লোক এসে কিছুক্ষণ অবস্থান নেয় ও প্রতিবাদ জানায়। এ ঘটনার পর হাসপাতাল নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

স্থানীয় লোকজন জানান, শিল্প এলাকার ১৮৪ নম্বর প্লটে নির্মাণাধীন হাসপাতালের লোকজন আসার পর সেখানে আসেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিউল্লাহ শফি।

শফিউল্লাহ শফি তেজগাঁও থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি। তিনি বলেন, ‘এখানে করোনাভাইরাসের আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল হবে শুনে হাজারখানেক লোক এসেছিল। আমি এসে তাদের শান্ত করি।’

স্থানীয় লোকজনকে তিনিই এখানে নিয়ে এসেছিলেন, এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শফিউল্লাহ শফি বলেন, ‘এই লোকজন আমার না, তারা স্থানীয় মানুষ।’

বাধার মুখে হাসপাতালের জন্য সামগ্রী আনা ট্রাক আর ভেতরে ঢুকতে পারেনি।

এখানে হাসপাতাল করার বিষয়ে শফিউল্লাহর অভিমত জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, এটা যেহেতু মহল্লা হচ্ছে। তাই এখানে করোনারভাইরাসে আক্রান্তদের হাসপাতাল হওয়া ঠিক হবে না। আমি এটার পক্ষে না।’

ঘটনাস্থলে তেজগাঁও থানার উপপরিদর্শক রুহুল আমিন বলেন, কাউন্সিলর আসার পর বেশ কিছুক্ষণ এখানে স্থানীয় লোকজন ছিলেন। পরে তারা চলে যান। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় ৩০১ শয্যার একটি হাসপাতাল তৈরি করছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী আকিজ গ্রুপ। রাজধানীর তেজগাঁওয়ে আকিজের নিজস্ব দুই বিঘা জমিতে হাসপাতালটি তৈরির কাজ শুরু হয়েছে।

আকিজ আশা করছে, দুই সপ্তাহের মধ্যে হাসপাতালটিতে রোগীদের চিকিৎসা শুরু করা যাবে। এটি তৈরি হচ্ছে তেঁজগাও-গুলশান লিংক রোডের শান্তা টাওয়ারের পেছনে। আকিজ সেখানে বিনা মূল্যে রোগীদের চিকিৎসা দেবে।

এই হাসপাতাল নির্মাণের অন্যতম উদ্যোক্তা গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানান, হাসপাতাল নির্মাণে বাধার কথা তিনি শুনেছেন। আকিজ গ্রুপের লোকেরা তাঁকে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, স্থানীয় কাউন্সিল এটা করাচ্ছেন। তিনি গুজব তৈরি করে লোকজন জড়ো করে এটা করছেন। বলা হচ্ছে, এখান থেকে ভাইরাস ছড়াবে। এখানে তো পরীক্ষা করা হবে। ছড়াবে কীভাবে?

জাফরুল্লাহর অভিযোগ, স্থানীয় কাউন্সিলর টাকা-পয়সা নেওয়ার জন্য এটা করছেন। তাঁর প্রশ্ন, এই লোকের এত বড় ধৃষ্টতা হয় কীভাবে। তিনি বলেন, ‘এখন পুলিশ গিয়েছে। আশা করি সব ঠিক হয়ে যাবে।’

জাফরুল্লাহ বলেন, এই হাসপাতাল নির্মাণে আকিজ জমি ও আরও সহায়তা দিয়েছে।