সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

‘অনারারে চাইতাম আইস্যিদি, বেশি মানুষ দলা নইয়ুন’

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২, ২০২০, ৪:১৯ অপরাহ্ণ


আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : ‘অনারা হন অবস্থাত আছন? আঁই অনারারে চাইতাম আইস্যিদি। দূরে গরি তিয়েয়ুন, বেশী মানুষ দলা নইয়ুন। নিজে বাঁচন, পরিবারর মাইনষুরে বাঁচন।’ (আপনারা কেমন আছেন? আমি আপনাদের দেখতে এসেছি। দূরে করে দাঁড়ান, বেশী মানুষ জড়ো হবেন না। নিজে বাঁচুন, পরিবারের সদস্যদের বাঁচান)।

বৃহস্পতিবার সকালে আনোয়ারা উপজেলার চাতরী চৌমুহনী বাজারে উপস্থিত হয়ে এলাকার মানুষের খোঁজখবর নিতে গিয়ে চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় এভাবেই বলছিলেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

মন্ত্রী ফলের দোকান ঘুরে দেখার সময় ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য বলেন, ‘তোঁয়ারা সদর অক্কলর কি অবস্থা, বেচাকিনা চলেন্নি?’ (আপনারা সওদাগরদের কি অবস্থা, বেচাকেনা চলছে?) এই দুর্যোগপূর্ণ সময়ে মন্ত্রীকে দেখে এ সময় অনেকে আবেগ আগ্লুত হয়ে পড়েন।।

পরে আনোয়ারা উপজেলার বারশত ইউনিয়নের গুন্দীপ, কালী বাড়ী, রায়পুর ইউনিয়নের ওয়াহেদ আলী চৌধুরী হাট, বটতলী-রুস্তমহাট ও পূর্ব আনোয়ারার বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে মানুষজনের খোঁজ খবর নেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

আনোয়ারার ইউএনও শেখ জুবায়ের আহমেদ ছাড়া ওই সময় মন্ত্রীর সঙ্গে দলের কোনো নেতাকর্মী ছিলেন না। তবে পরিদর্শনের সময় উল্লিখিত স্থানগুলোতে অবস্থান নিয়েছিলেন দলের স্থানীয় পর্যায়ের নেতারা।

আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম এ মান্নান চৌধুরী বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে লোকজনের খবর নিতে মন্ত্রী এলাকায় এসেছেন। তিনি আনোয়ারার পাঁচ হাজার পরিবারের জন্য ইতিমধ্যে খাদ্য সামগ্রী দিয়েছেন। আরও দিবেন।

এর আগে সকালে কর্ণফুলী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে সাধারণ মানুষের খোঁজখবর নেন ভূমিমন্ত্রী।