সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ডেঙ্গু ঠেকাতে নগরবাসীকে সচেতন হতে বললেন মেয়র নাছির

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৯, ২০২০, ৩:২৬ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম : ডেঙ্গু ঠেকাতে নগরবাসীকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। বৃহস্পতিবার সকালে নগরীর বহদ্দারহাট পুলিশ বক্স থেকে চাক্তাই খালের পাড় হয়ে চকবাজার ফুলতল পর্যন্ত মশার ওষুধ ছিটানোর কার্যক্রম উদ্বোধনের সময় তিনি এ কথা বলেন।

সিটি মেয়র বলেন, বর্তমান সময়টা মশা প্রজননের উর্বর সময়। এসময় সিটি কর্পোরেশনের পাশাপাশি নগরবাসীকেও সচেতন হতে হবে। আগামী কয়েক মাস পর এডিস মশার বংশবৃদ্ধির জন্য উপযুক্ত সময় হবে। ভারী বর্ষণ কিংবা থেমে থেমে বৃষ্টি হওয়ার কারণে বাড়ীর আশপাশ, ফুলের টব, আবর্জনা ফেলার পাত্র, প্লাস্টিকের পাত্র, পরিত্যক্ত টায়ার, প্লাষ্টিকের ড্রাম, মাটির পাত্র, বালতি, টিনের কৌটা, ডাবের খোসা, নারিকেলের মালা, ব্যাটারী শেল, পলিথিন, চিপসের প্যাকেট এবং নালা-নর্দমায় জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে এডিস মশার প্রজননের স্থান। এজন্য জনগণকে সচেতন হতে হবে।

তিনি নগরবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা নিজেরা সচেতন হয়ে খাল ও নালায় ময়লা ফেলা থেকে বিরত না থাকলে কোন অবস্থাতেই জলাবদ্ধতাসহ মশার প্রকোপ থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব নয়। করোনাভাইরাসের দূর্যোগে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়টি সচেতনভাবে পালন করতে হবে।

নগরবাসীকে মশার উৎপাত থেকে রক্ষা করার জন্য মশা নিধনের বিশেষ ক্রাশ প্রোগ্রাম চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন হাতে নিয়েছে উল্লেখ করে মেয়র নাছির বলেন, নগরীর ৪১ টি ওয়ার্ডে ৪ জন করে ১৬৪ জন কর্মী হ্যান্ড স্প্রে মেশিনের মাধ্যমে মশা ও এডিস মশার প্রজনন স্থানে লারভিসাইড ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। ইতোমধ্যে নতুন হ্যান্ড স্প্রে মেশিন কেনা হয়েছে।

তিনি বলেন, চসিকের হাতে মশা এবং মশার লার্ভা ধ্বংসকারী ওষুধ মজুদ রয়েছে। প্রয়োজনে আরও ওষুধ সংগ্রহ করা হবে। মশা এবং চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গুরোধে ঝোপঝাড় পরিষ্কার করা ও নালা-নর্দমায় যেখানে মশা জন্ম হয় সেখানে ওষুধ ছিটানো হবে বলে জানান মেয়র।

এ সময় মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাশেম, চসিক প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শেখ সফিকুল মান্নান সিদ্দিকী, তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সুদীপ বসাক, অতিরিক্ত প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদ আলম চৌধুরী, রাজনীতিক মামুনুর রশিদ, লিটন রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।