শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭

স্পেনে চার দফা দাবি নিয়ে অবৈধ অভিবাসীদের বিক্ষোভ  

প্রকাশিতঃ বুধবার, মে ২৭, ২০২০, ৬:৩২ অপরাহ্ণ

কবির আল মাহমুদ, স্পেন : স্পেনে বৈধ কাগজপত্র ছাড়া বসবাসকারী বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের দুই লাখ অবৈধকে বৈধ করে কাজ করার সুযোগ, স্বাস্থ্যসেবা সবার জন্য উন্মুক্ত এবং প্রবাসী অভিবাসীদের জন্য ফ্রি দোভাষী দেয়ার দাবিতে মাদ্রিদে মানববন্দন ও বিক্ষোভ-সমাবেশ করছে স্পেনের বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন ও অভিবাসীরা।

স্প্যানিশ মানবাধিকার সংগঠন রেড ইন্টার লাভাপিয়েস এবং রেড সলিদারিদাদ আমন্ত্রণে বাংলাদেশি মানবাধিকার সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন দে ভালিয়েন্তে বাংলার তত্ত্বাবধানে ৪ দফা দাবিসংবলিত ব্যানার নিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিরা এতে অংশগ্রহণ করেন।

মঙ্গলবার (২৬ মে) কয়েক শত স্থানীয় আদিবাসীদের সঙ্গে উল্লেখযোগ্য প্রবাসী বাংলাদেশিরাও মানববন্দন এবং বিক্ষোভ-সমাবেশে অংশগ্রহণ করেন।

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের বাঙালি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের নেনসন মেন্ডেলা পার্ক সংলগ্ন সেন্ট্রো সালুদ (সরকারী মেডিক্যাল) এর সামনে এই মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় বৈধ কাগজপত্র ছাড়া বসবাসকারী বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের অবৈধদেরকে বৈধ করে কাজ করার সুযোগ এবং প্রবাসী অভিবাসীদের জন্য ফ্রী দোভাষী দেয়াসহ চার দফা দাবি তুলে ধরেন প্রবাসীরা।

দাবিগুলো হলো- স্বাস্থ্য সেবা সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া,সকল প্রবাসী অভিবাসীদের জন্য ফ্রী দোভাষীর ব্যাবস্থা, অবৈধ অদিবাসীদেরকে বৈধতা প্রদান, মাস্ক সবার জন্য ফ্রি করা।

বাংলাদেশি মানবাধিকার সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন দে ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি মোহাম্মদ ফজলে এলাহীর উপস্থাপনায় আয়োজিত মানববন্ধও ও বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন রেড ইন্টার লাভাপিয়েসের সভাপতি মারিয়া খসে পেপা তররেস, রেড ইন্টার লাভাপিয়েসের মাইতি, রেড সলিরিদাদ এর আকখিদা নিনেস, আন্তর্জাতিক মিউজিয়াম রেইনা সুফিয়ার পরিচালক আনা লঙ্গনী, পিলার আগুইলার, মাস মাদ্রিদের অরিক্স, অ্যাসোসিয়েশন দে ভালিয়েন্তে বাংলার সাধারন সম্পাদক রমিজ উদ্দিন, জুলহাস উদ্দিন,আলামীন পালোয়ান, শাহ আলমসহ বিভিন্ন সংগঠনের স্থানীয় নেতারা।

মানববন্ধন এবং সমাবেশে স্প্যানিশ, বাংলাদেশি, মরক্কো, আফ্রিকান, সেনেগালসহ বিভিন্ন দেশের প্রবাসী অভিবাসীরা অংশ নেন।

সভায় বক্তারা বলেন, স্পেনে অবৈধ অভিবাসীরা যাদের বৈধ কাগজ নেই, তারা প্রতিনিয়ত ভালো কাজ এবং স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্চিত হন।স্পেনে অবৈধ অভিবাসীদের এসব ন্যায্য দাবিগুলো এখনও পুরণ হয়নি। এখনো অবৈধ অভিবাসীরা ভিবিন্নভাবে শোষিত হচ্ছে। এসব লিগ্যাল দাবি পূরণ করার জন্যই এই সংকটময় মুহূর্তে ও তারা রাজপথে নেমে এসেছেন।