বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬

চবি বার্ড ক্লাবের নেতৃত্বে অপহরণ মামলার আসামি!

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, মে ১৪, ২০১৯, ২:৩৭ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম : পাখির প্রতি ভালোবাসা থেকেই যাত্রা শুরু করা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) বার্ড ক্লাবের প্রধান সমন্বয়ক করা হয়েছে স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী এমদাদুল হক অপহরণ মামলার আসামি রফিকুল ইসলামকে; এ নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে সংশ্লিষ্ট মহলে।

গত ১১ মে চবি বার্ড ক্লাব আয়োজিত ইফতার মাহফিলে রফিকুল ইসলামকে এই দায়িত্ব দেওয়া হয় বলে স্বীকার করেছেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফরিদ আহসান।

এর আগে গত ২৭ মার্চ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাণীবিদ্যা বিভাগের প্রভাষক পদে নিয়োগের সাক্ষাৎকারে অংশ নিতে যাওয়া এমদাদুল হককে অপহরণের অভিযোগ উঠে।

এ ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে চবি প্রশাসন। উক্ত কমিটি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গত ৫ মে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে।

এদিকে অপহরণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে মামলা করেন এমদাদুল হক। এতে আসামির তালিকায় ৭ জনের মধ্যে ৫ নাম্বারে আছেন রফিকুল ইসলাম।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, অপহরণের মতো গুরুতর অপরাধে অভিযুক্ত কেউ পাখিরক্ষায় বা পাখি নিয়ে কাজ করা সংগঠনের মূল দায়িত্বে আসা কাম্য নয়। এতে সংগঠনের উপর কালিমা লেপন করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চবি বার্ড ক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফরিদ আহসান একুশে পত্রিকাকে বলেন, এ বিষয়ে আমার কাছে কিছু জিজ্ঞেস করবেন না। আমার কাছে কমেন্ট চাইবেন না।

পরক্ষণে তিনি বলেন, সে (রফিকুল) যাদের লোক, তারাই তাকে দায়িত্ব দিয়েছে। তার পেছেনের রেজাল্ট দেখলেন, সামনের রেজাল্টও দেখেন। সবাই তো আর সমান হবে না।

এ বিষয়ে রফিকুল ইসলামের বক্তব্য একুশে পত্রিকা জানতে পারেনি।

একুশে/এসআর/এটি