সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ৬ কার্তিক ১৪২৬

‌’সরকার ঝরেপড়া শিশুদের জন্য কাজ করছে’

প্রকাশিতঃ বুধবার, জুলাই ৩, ২০১৯, ৪:১১ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম : গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো’র সহযোগিতায় এবং যুগান্তর সমাজ উন্নয়ন সংস্থা (জেএসইউএস) কর্তৃক বাস্তবায়িত সেকেন্ড চান্স এডুকেশন-এর আওতাধীন শিখন কেন্দ্রের শিক্ষিকদের অংশগ্রহণে দিনব্যাপি সতেজীকরণ কর্মশালা বুধবার সকাল ১১টায় নগরীর প্রেসক্লাবস্থ এস. রহমান হলে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর সহকারি পরিচালক জনাব জুলফিকার আমিন, জেএসইউএস এসসিই প্রকল্পের ফিল্ড কোঅর্ডিনেটর জনাব মুনজিলুর রহমান, ব্র্যাক প্রশিক্ষক মো: শওকত আকবর।

আরো উপস্থিত ছিলেন সংস্থার কর্মসূচি ব্যবস্থাপক (এসডিপি) আরিফুর রহমান, প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ ও অংশগ্রহণকারী শিক্ষিকাবৃন্দ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেএসইউএস’র কর্মসূচি সমন্বয়কারী শহিদুল ইসলাম।

প্রকল্পের প্রোগ্রাম অফিসার শামিম আক্তার রুমা’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তর‌্য রাখেন কর্মসূচির ফিল্ড কোঅর্ডিনেটর মুনজিলুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর সহকারী পরিচালক জুলফিকার আমীন বলেন, “সরকার ঝরেপড়া শিশুদের মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে কাজ করছে। বর্তমানে শিশুরা দ্বিতীয় শ্রেণী শেষ করে তৃতীয় শ্রেণীতে অধ্যয়নের মধ্য দিয়ে মূলধারার শিক্ষার সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছে। আমার প্রত্যাশা থাকবে শিখন কেন্দ্রে অধ্যয়ন করা প্রতিটি শিশু সঠিক শিক্ষা লাভের মধ্য দিয়ে পরীক্ষায় শতভাগ সফলতা অর্জন করতে পারে। আর এ বিষয়টি নিশ্চিতকরণে প্রতিটি শিক্ষককে দায়িত্ব পালনে আরো বেশি সচেষ্ট হতে হবে। মানসম্মত শিক্ষায় শতভাগ সফলতা অর্জনের দায়-দায়িত্ব আমাদের সকলে গ্রহণ করতে হবে।”

জেএসইউএস’র কর্মসূচি সমন্বয়কারী শহীদুল ইসলাম বলেন, “শহরের কর্মজীবী ও ঝরেপড়া শিশুদের স্কুলমুখী করা এবং শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে পরিচালিত শিখন কেন্দ্রগুলোর সফলতায় শিক্ষকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। যার জন্য শিক্ষকদের আরো বেশি দায়িত্বশীল হয়ে পাঠদানের প্রতি মনোযোগী হতে হবে।”

একুশে/প্রেসবিজ্ঞপ্তি/এটি