বৃহস্পতিবার, ২৮ মে ২০২০, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

চট্টগ্রামে করোনা-আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা ৪ জনের নমুনা সংগ্রহ

প্রকাশিতঃ শনিবার, এপ্রিল ৪, ২০২০, ৮:৫৩ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম : করোনা-্আক্রান্ত ব্যক্তির স্ত্রী, অন্য এক মেয়ে, ছেলে এবং ভাতিজার শরীর থেকে করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করে ফৌজদারহাট বক্ষব্যাধি হাসপাতালের ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (৪ এপ্রিল) দুপুরে নগরের দামপাড়াস্থ ১ নং গলির লকডাউনে থাকা বাড়িটিতে গিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্মীরা কঠোর সতর্কতায় এই চারজনের নমুনা সংগ্রহ করেছেন বলে একুশে পত্রিকাকে জানিয়েছেন চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী।

সিভিল সার্জন বলেন, সম্প্রতি যারা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছেন স্ত্রী, কন্যা, ছেলে ও ভাতিজার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সংস্পর্শে আর কেউ এসেছেন কিনা, এলে কারা এসেছেন তাদের খুঁজে বের করে নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। একই সাথে সৌদিফেরৎ মেয়েটিরও (আক্রান্ত ব্যক্তি যার সংস্পর্শে এসেছিলেন) নমুনা সংগ্রহের কথা ভাবছেন সিভিল সার্জন, যদিও ১৪ দিন মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ার ফলে এ মুহূর্তে তার শরীরে করোনা ভাইরাস না পাওয়ারই কথা।

এ প্রসঙ্গে সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বী বলেন, আক্রান্ত ব্যক্তির সৌদিফেরৎ মেয়ে ফিরেছেন ১২ মার্চ। আমরা নরমাল যে সময় দিই সেটা ১৪ দিন। সে হিসেবে ওই পিরিয়ডটি পার হয়ে গেছে। তিনি এখন রোগ ছড়ানোর ক্ষমতা হারিয়ে ফেলার কথা। ১৪ দিন পর ভাইরাস থাকার আর কোনো কারণ নেই। সে কারণে আমরা অগ্রাধিকার দিচ্ছি এই কদিন আক্রান্ত ব্যক্তির কন্টাক্টে যার এসেছেন তাদেরকে। তবে ওই মেয়ে এবং তার শাশুড়িকেও পরীক্ষার আওতায় আনা হবে।

১৪ দিন সময়সীমা চলে যাওয়ার পর নতুন করে কেউ যদি আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসে তাহলে পুনরায় সংক্রমিত হতে পারে – সেই আশঙ্কা থেকেও সৌদিফেরৎ দুই নারীসহ সংস্পর্শে আসা প্রত্যেকের নমুনা পরীক্ষা প্রয়োজন বলে মনে করেন সিভিল সার্জন।