শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

কলেজছাত্র হত্যা মামলায় পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, অক্টোবর ১২, ২০২১, ২:৩২ অপরাহ্ণ


রাজশাহী : রাজশাহীতে কলেজছাত্র হত্যা মামলায় পাঁচ আসামিকে ফাঁসি আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। এ মামলার অন্য নয়জন আসামি বেকসুর খালাস পেয়েছেন।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় রাজশাহীর দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুপ কুমার সাহা এই রায় ঘোষণা করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এন্তাজুল হক বাবু এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিরা হলেন- রাজশাহী নগরীর দড়িখড়বোনা এলাকার আজিজুর রহমান ওরফে রাজন, সাজ্জাদ হোসেন ওরফে সাজু, মো. রিংকু ওরফে বয়া, দুর্গাপুর উপজেলার ব্রম্ভপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেন ও বাগমারা উপজেলার মাদারীগঞ্জ গ্রামের মাহাবুর রশীদ ওরফে রেন্টু।

দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এন্তাজুল হক বাবু জানান, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে রাজশাহী নগরীর নিউমার্কেট এলাকায় ২০১০ সালের ১৫ মার্চ সন্ধ্যায় প্রকাশ্যে রাজু আহমেদ নামের এক কলেজছাত্রকে পিটিয়ে ও ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। রাজু রাজশাহী জেলার দুর্গাপুরের দাওকান্দি ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি বাগমারা উপজেলার হাসনিপুর গ্রামে। রাজু মহানগরীর মোন্নাফের মোড় এলাকায় এক বন্ধুর সঙ্গে মেসে থাকতেন।

আইনজীবী জানান, আসামি মাহাবুর রশীদ ওরফে রেন্টুর সঙ্গে বাগমারার একটি জমি নিয়ে রাজুর পরিবারের বিরোধ ছিল। এর জের ধরে ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের নিয়ে মাহাবুর রশীদ রাজুকে হত্যা করেন। এ মামলায় ৫৮ জন সাক্ষী ছিলেন। আদালত ৩১ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করেই রায় ঘোষণা করলেন।

মামলায় মোট আসামি ছিলেন ১৪ জন। এর মধ্যে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় নয়জন বেকসুর খালাস পেয়েছেন। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা সবাই আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণা শেষে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচজনকে রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী।