মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৫ মাঘ ১৪২৯

আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে মিরাজ

প্রকাশিতঃ ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ২:০৬ অপরাহ্ন


ঢাকা : ওয়ানডেতে গত বছরে যেভাবে আলো ছড়িয়েছেন, তাতে মেহেদী হাসান মিরাজের বর্ষসেরা দলে জায়গা পাওয়াটা প্রত্যাশিতই ছিল। হয়েছেও তাই। বছর জুড়ে ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের স্বীকৃতি স্বরূপ আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে দলে জায়গা হয়েছে অফস্পিনিং অলরাউন্ডারের।

২৮.২০ গড়ে ১৫ ম্যাচে ২৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি। তার সেরা পারফরম্যান্স ছিল ২৯ রানে ৪ উইকেট। ৬৬ গড়ে ব্যাট হাতে সংগ্রহ করেছেন ৩৩০ রান। যেখানে একটি সেঞ্চুরির সঙ্গে রয়েছে একটি ফিফটি। ভারতকে ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ব্যবধানে হারানোর পেছনে বড় অবদানও ছিল তার। সিরিজ সেরা ছিলেন তিনি।

বর্ষসেরা ওয়ানডে দলটির অধিনায়ক করা হয়েছে পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকে। ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ ব্যাটার বাবর পুরোটা বছরই ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন। ৮৪.৮৭ গড়ে তুলেছেন ৬৭৯ রান।

ভারতের শ্রেয়াস আইয়ার ৫০ ওভার ফরম্যাটে সবচেয়ে ধারাবাহিক ব্যাটার ছিলেন। বিশেষ করে মিডল অর্ডারের মূল চালিকাশক্তি ছিলেন তিনি। বেশিরভাগ সময় ৪ নম্বরে ব্যাট করতে নামা আইয়ার পঞ্জিকা বর্ষে ১৭টি ম্যাচ খেলেছেন। ৫৫.৬৯ গড়ে তুলেছেন ৭২৪ রান।

কিউই ব্যাটার টম ল্যাথামও সলিড ব্যাটিংয়ের জন্য স্বীকৃত। পাঁচ নম্বরে নেমে প্রায় ফিনিশারের ভূমিকা দেখা গেছে উইকেটকিপার ব্যাটারকে। ১৫ ম্যাচে ৫৫.৮০ গড়ে তার সংগ্রহ ছিল ৫৫৮ রান। স্ট্রাইক রেট ছিল ১০১.২৭।

বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা পাওয়া সিকান্দার রাজা ওয়ানডের বর্ষসেরা দলেও জায়গা পেয়েছেন। ব্যাট-বলে আধিপত্য দেখিয়ে পুরোটা বছর আলোচনায় ছিলেন জিম্বাবুইয়ান এই অলরাউন্ডার।

বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন ট্রেন্ট বোল্ট ও অ্যাডাম জাম্পাও। নিউজিল্যান্ডের বামহাতি পেসার বোল্ট মাত্র ৬ ম্যাচ খেলে ১২.৩৮ গড়ে ১৮ উইকেট নিয়েছেন। সেরা ফিগার ছিল ৩৮ রানে ৪। অস্ট্রেলিয়ার লেগস্পিনার জাম্পা অপর দিকে বছরের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি ছিলেন। নিয়েছেন ৩০ উইকেট।

বর্ষসেরা ওয়ানডে দল:

বাবর আজম (অধিনায়ক), ট্রাভিস হেড, শাই হোপ, শ্রেয়াস আইয়ার, টম ল্যাথাম ( উইকেটকিপার), সিকান্দার রাজা, মেহেদী হাসান মিরাজ, আলজারি জোসেফ, মোহাম্মদ সিরাজ, ট্রেন্ট বোল্ট ও অ্যাডাম জাম্পা।