শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

নেপালকে হারাল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, নভেম্বর ১৩, ২০২০, ৯:২০ অপরাহ্ণ


ঢাকা : মুজিববর্ষ ফিফা আন্তর্জাতিক প্রীতি ফুটবল সিরিজের প্রথম ম্যাচে সফরকারী নেপালের বিপক্ষে ২-০ গোলে জয়ী হয়েছে স্বাগিতক বাংলাদেশ। আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের দুই অর্ধে স্বাগতিক বাংলাদেশের হয়ে দুই গোল করেছেন যথাক্রমে নাবিব নেওয়াজ জীবন ও বদলী খেলোয়াড় মাহবুবুর রহমান সুফিল।

খেলা শেষে জীবন বলেন, ‘এই জয়ে খুব আনন্দ লাগছে। দীর্ঘ বিরিতর পর মাঠে ফিরে জয় পাওয়াটা স্বস্তির। ম্যাচের আগে ফিটনেস ফিরে পাবার জন্য আমরা তিন সপ্তাহ কঠোর পরিশ্রম করেছি। এর ফলও পেয়েছি। করোনা কালেও যে আমরা নিস্ক্রিয় ছিলাম তা নয়। ফেডারেশনের নির্দেশনা মেনে আমরা নিজ নিজ বাড়ীতে ফিটনেস ধরে রাখার অনুশীলন চালিয়ে গেছি।’

প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ । ম্যাচের ১০ম মিনিটে নাবিব নেওয়াজ জীবনের গোল লীড এনে দেয় স্বাগতিক শিবিরে। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে ওঠা সাদ উদ্দিন দুই ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে বল বাড়ান গোলমুখে। সেখান থেকে নিখুঁত স্লাইডে জাল খুঁজে নেন জীবন (১-০)।

২১তম মিনিটে ব্যবধান হতে পারত দ্বিগুণ। জীবনের ক্রসে দ্বিতীয় পোস্টে থাকা মোহাম্মদ ইব্রাহিমের হেড ডিফেন্ডারের গায়ে লাগে। একটু পর বিশ্বনাথের থ্রো থেকে পাওয়া তপুর হেড পোস্টের বাইরে দিয়ে যায়। ২৭তম মিনিটে মানিক মোল্লার ২৫ গজ দূর থেকে নেওয়া শট গোলরক্ষকের গ্লাভস ছুয়ে ক্রসবার ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

করোনাভাইরাসের সংক্রমনে আট খেলোয়াড়কে হারানো নেপালকে প্রথমার্ধের পুরোটা সময় চাপে রাখে জেমি ডে’র শিষ্যরা। ৩২তম মিনিটে সাদের ক্রসে জীবনের ভলি ক্রসবারের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়।

সাত মিনিট পর অঞ্জন বিসতার দুর্বল শট সহজেই তালুবন্দি করেন জিকো। ফলে ১-০ গোলের লীড নিয়ে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

বিরতির পরও আক্রমণের ধারা অব্যাহত রাখে স্বাগতিক দল। এরই ধারাবাহিকতায় ৭৯ মিনিটে বদলী খেলোয়াড় মাহবুবুর রহমান সুফিলের দারুন এক গোলে নিরাপদ দূরত্বে পৌঁছে যায় স্বাগতিক দল। বাঁ প্রান্ত দিয়ে সতীর্থের এগিয়ে দেয়া বল নিয়ে নেপালের রক্ষনের দুই খেলোয়াড়কে বোকা বানিয়ে একেবারেই ছোট ডি বক্সের ভেতর গিয়ে ঠান্ডা মাথায় ডান পায়ের প্লেসিং শটে গোল করেন সুফিল। ফলে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জেমি ডের শিষ্যরা। এই জয়ে দুই ম্যাচের সিরিজেও ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। আগামী মঙ্গলবার একই স্টেডিয়ামে একই সময় শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ প্রীতি ম্যাচটি।