সোমবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

দেড় যুগ পর মালদ্বীপের বিপক্ষে জয় পেল বাংলাদেশ

প্রকাশিতঃ শনিবার, নভেম্বর ১৩, ২০২১, ৭:০৬ অপরাহ্ণ


খেলাধুলা ডেস্ক : মালদ্বীপকে হারিয়ে শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে চার জাতি ফুটবলে টিকে থাকলো বাংলাদেশ। শনিবার কলম্বোয় মালদ্বীপকে ২-১ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল।

ম্যাচের প্রথমার্ধের খেলা ছিল ১-১। পরে দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশের পক্ষে জয়সূচক গোলটি করেন তারকা ডিফেন্ডার তপু বর্মণ। এর আগে প্রথমার্ধে দলের প্রথম গোলটি করেছিলেন অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া।

দলের দুই তারকা জামাল-তপুর গোলে দীর্ঘ ১৮ বছর পর মালদ্বীপকে হারানোর স্বাদ পেলো বাংলাদেশ।

একসময় যে মালদ্বীপের জালে গুনে গুনে গোল দিতো বাংলাদেশ, সেই মালদ্বীপ এখন দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম পরাশক্তি। বাংলাদেশের জন্য তো সাম্প্রতিক সময়ে ভয়ংকর এক প্রতিপক্ষ। সর্বশেষ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে ২-০ গোলের হারটি ছিল দ্বীপ দেশটির বিপক্ষে বাংলাদেশের টানা চতুর্থ।

বাংলাদেশ কবে হারিয়েছিল মালদ্বীপকে তা অনেকে ভুলতেই বসেছিলেন। কারণ ২০০৩ সালের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের পর ৫ ম্যাচ খেলে চারটিতেই হেরেছে বাংলাদেশ। একটি ম্যাচ হয়েছিল ড্র। চার হারের মধ্যে ৫-০ গোলের লজ্জাজনক ব্যবধানও আছে।

দীর্ঘ ১৮ বছর পর সেই মালদ্বীপকে হারালো বাংলাদেশ। শনিবার শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে ফুটবল টুর্নামেন্টে টিকে থাকার ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে ২-১ গোলে। প্রথমার্থের খেলা ছিল ১-১ গোলে ড্র। বাংলাদেশ পেনাল্টি থেকে জয়সূচক গোল করেছে ম্যাচের ৮৮ মিনিটে।

প্রথমার্ধে ম্যাচের ১২ মিনিটে রহমত মিয়ার লম্বা থ্রো থেকে জামাল ভূঁইয়া গোল করে এগিয়ে দেন দলকে। যদিও গোলটি বাংলাদেশকে আদায় করতে হয়েছে রেফারির কাছে জোর আবেদন করে।

জামাল বল জালে পাঠালেও সহকারী রেফারি পতাকা ওঠান অফসাইডের। জামালদের আবেদনে সহকারী রেফারির সঙ্গে আলোচনা করে গোলের বাঁশি বাজান রেফারি।

পরে ৩২ মিনিটের কর্নার কিক থেকে গোল করে মালদ্বীপকে ম্যাচে ফেরান মুহম্মদ উমাইর। আলী আশফাকের কর্নার থেকে কোন সুযোগ না দিয়ে বল জালে পাঠান অরক্ষিত অবস্থায় থাকা উমাইর।

দ্বিতীয়ার্ধে ৮৮ মিনিটের সময় বল নিয়ে বক্সে ঢুকলে জুয়েল রানাকে অবৈধভাবে বাধা দেন মালদ্বীপের গোলরক্ষক। পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে দলকে এগিয়ে দেন তপু বর্মন।

বাকি সময় গোল ধরে রেখে ১৮ বছর পর মালদ্বীপের বিপক্ষে জয়ের উৎসব করে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের মাধ্যমেই প্রথম জয় দেখলো এই টুর্নামেন্টও।

দুই ম্যাচে ১ ড্র ও ১ জয় থেকে ৪ পয়েন্ট নিয়ে এখন টেবিলের শীর্ষে বাংলাদেশ। শ্রীলংকার বিপক্ষে শেষ ম্যাচ ড্র করলেই ফাইনাল নিশ্চিত বাংলাদেশের।