মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯

বিপর্যয়ের পর মুশফিক-লিটনের রেকর্ডে দিন শেষ বাংলাদেশের

প্রকাশিতঃ ২৩ মে ২০২২ | ৬:৩৫ অপরাহ্ন


ঢাকা : সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া বাংলাদেশকে চালকের আসনে নিয়ে এসেছেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন কুমার দাস। ইনিংসের সপ্তম ওভারে ২৪ রান করতেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে স্বাগতিকরা। ধুঁকতে থাকা বাংলাদেশ দিন শেষ করেছে ৫ উইকেটের বিনিময়ে ২৭৭ রান করে। মুশফিক ও লিটনের ২৫৩ রানের রেকর্ড জুটি ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে টাইগারদের শক্ত ভিত গড়ে দিয়েছে। মুশফিক দেখা পেয়েছেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের নবম শতকের এবং লিটন তৃতীয়।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরটা মোটেও ভালো হয়নি স্বাগতিকদের। দ্বিতীয় টেস্টে টসে জিতে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশের অধিকায়ক মুমিনুল হক। তার এ সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমাণ করছেন লঙ্কান বোলাররা। চট্টগ্রাম টেস্টে বিশ্ব ফার্নান্দোর পরিবর্তে কনকাশন হয়ে মাঠে নেমে ৪ উইকেট পাওয়া কাসুন রাজিথা আজও বোলিংয়ে আগুন ঝরিয়েছেন।

দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয় রানের খাতা খোলার আগেই ফিরে গেছেন। অধিনায়ক মুমিনুল হক ৯ রান আর নাজমুল হোসেন শান্ত প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন ব্যক্তিগত ৮ রান করে। নিজের প্রথম বলেই এলবিডব্লিউ হয়েছেন সাকিব আল হাসানও। ৭ ওভার শেষে ২৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে রীতিমত ম্যাচ থেকে ছিটকে যাওয়ার অবস্থায় বাংলাদেশ।

স্বাগতিক দলের টপ অর্ডারে নামা ব্যাটাররা যে কাজ করতে পারেননি আজ সেটিই করে দেখিয়েছেন মিডল অর্ডারে নামা বাংলাদেশের দুই উইকেটরক্ষক ব্যাটার মুশফিক ও লিটন। ওভার প্রতি রান তুলছেন ৩ করে। দুজনেই অর্ধশতকের পথে খেলেছেন ১২০ বলেরও বেশি।

ফিফটির পর দুজনই তুলে নিয়েছেন নিজের শতক। ১৪৯ বলে লিটন করেছেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের তৃতীয় শতক। অপরদিকে মুশফিকুর রহিম ২১৮ বল খেলে করেছেন টানা দ্বিতীয় শতক এবং সাদা পোশাকে নিজের নবম শতক।

দিন শেষে দুই জনের অপরাজিত ২৫৩ রানে জুটিতে বড় সংগ্রহের স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ। প্রথম দিনের খেলা শেষে মুশফিক অপরাজিত আছেন ১১৫ রান করে এবং লিটন অপরাজিত আছেন ১৩৫ রান করে। সফরকারীদের হয়ে ৩টি উইকেট নিয়েছে রাজিথা ও ২টি উইকেট নিয়েছেন আসিথা ফার্নান্দো।