বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

মরুর বুকে ফুটবলের বিশ্বযুদ্ধ

প্রকাশিতঃ ২০ নভেম্বর ২০২২ | ৮:২৪ পূর্বাহ্ন


খেলাধুলা ডেস্ক : এবারই প্রথমবারের মতো মধ্যপ্রাচ্যের কোনো দেশ ফুটবল বিশ্বকাপের আয়োজন করছে। আর আয়োজক দেশ কাতারও অংশ নিচ্ছে প্রথমবার। স্বাগতিক সুবিধায় বাছাইপর্ব ছাড়াই বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেয়েছে কাতার।

এদিকে প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ ইকুয়েডর বিশ্বকাপে ফিরেছে দীর্ঘ আট বছর পর। খাতা-কলমে স্বাগতিকদের চেয়ে ঢের এগিয়ে রয়েছে লাতিন আমেরিকান দেশটি। তাই জয়ের হিসাব কষতে গেলে এগিয়ে রাখতে হবে ইকুয়েডরকেই।

ম্যাচের হিসাব-নিকাষ তো পরে, উদ্বোধনী ম্যাচের আগে বেশ চমক রেখে কাতার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তারা রেখেছে বণার্ঢ্য আয়োজন।

যা যা থাকছে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে:

মধ্যপ্রাচের এই দেশটির ইতিহাস ঐতিহ্য নিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকছে বিশেষ প্রদর্শনী। এরপর ফিফা বিশ্বকাপের ২২তম আসরের অফিসিয়াল থিম সং ‘দ্য ওয়ার্ল্ড ইজ ইওরস টু টেক’ গাইবেন লিও বেবি। তার গানের তালে নাচবেন বলিউডের আইটেম গার্ল নোরা ফাতেহি। তার সঙ্গে থাকছেন মানাল ও রেহমা।

শুধু তাই নয়, শাকিরা এবং কিজ ড্যানিয়েল উদ্বোধনী অনুষ্ঠিানে গাইবেন বলে গুঞ্জনও শোনা যাচ্ছে। কিন্তু এ বিষয়ে নিশ্চিতভাবে কিছুই বলেনি আয়োজক কর্তৃপক্ষ। এখানে শেষ নয়, কোরিয়ার বিখ্যাত ব্যান্ড বিটিএসের গানও উপভোগ করবেন দর্শকরা। এছাড়াও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকতে পারেন পপ গায়িকা দুয়া লিপা, ব্ল্যাক আইড পিস, জে বালভিন ও নাইজেরিয়ার সংগীতশিল্পী প্যাট্রিক নায়েমেকা ওকোরিকে। তাছাড়া থাকবেন কাতারের স্থানীয় শিল্পীরাও।

উদ্বোধনী ম্যাচে এগিয়ে কারা?

শক্তিমত্ত্বার বিচারে কাতারের চেয়ে খানিকটা এগিয়ে লাতিন আমেরিকান অঞ্চলের দেশটি ইকুয়েডর। কেননা ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফা কর্তৃক প্রকাশিত র্যা ঙ্কিংয়ে এগিয়ে রয়েছে ইকুয়েডরই। র্যা ঙ্কিংয়ে তাদের অবস্থান ৪৪ নম্বরে। তাদের রেটিং পয়েন্ট ১৪৬৪। অন্যদিকে ১৪৩৯ রেটিং নিয়ে র্যা ঙ্কিংয়ে ৫০ নম্বরে অবস্থান করছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটি।

কিন্তু স্বাগতিক সুবিধা যেকোনো ম্যাচেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যেমনটা দেখা গিয়েছিলো রাশিয়া বিশ্বকাপেও। সেবার গ্রুপপর্ব অতিক্রম করে সেরা ষোলোতে উঠে রাশিয়া রুশরা। শুধুই কি তাই, রাউন্ড অব সিক্সটিনে শক্তিশালী স্পেনকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিটও পেয়েছিলো সেবারের স্বাগতিকরা। এবারের স্বাগতিক কাতারকে পিছিয়ে রাখা যাচ্ছে না।

এছাড়া কাতার এ পর্যন্ত টানা পাঁচ ম্যাচে অপরাচিজত রয়েছে। সেপ্টেম্বরে চিলির সাথে ২-২ গোলে করার পর একে একে কাতার হারিয়েছে গুয়াতেমালা, হন্ডুরাস, পানাম ও আলবেনিয়াকে। এসবই কাতারকে বাড়তি আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে। গ্রুপ-এ’র অপর দুটি দল হচ্ছে সেনেগাল ও নেদারল্যান্ডস।

কাতার বিশ্বকাপে ফেভারিট যারা:

অক্সফোর্ড ম্যাথমেটিক্যাল মডেলের প্রেডিকশন অনুযায়ী ফুটবল বিশ্বকাপের ২২তম আসরের হট ফেভারিট হিসেবে লাতিন আমেরিকান দল ব্রাজিল ও ইউরোপের বেলজিয়ামকে রাখা হয়েছে। তাদের দেয়া তথ্যমতে, বিশ্বকাপ জেতার শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সেরও।

তারা মূলত চলমান বিশ্বকাপ নিয়ে একটি ভবিষ্যদ্বাণী করেছে। যেখানে চার সেমিফাইনালিস্ট হচ্ছে- আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, বেলজিয়াম ও ফ্রান্স। ফুটবলে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল সেমিফাইনালে পরস্পরের বিপক্ষে মাঠে নামবে। আর সেই ম্যাচে জয়লাভ করবে ব্রাজিল। অন্য সেমিফাইনালে ফ্রান্সকে হারিয়ে ফাইনালে উঠবে কেভিন ডি ব্রুইনের বেলজিয়াম।

শিরোপা নির্ধারণী ফাইনাল ম্যাচে নেইমারের ব্রাজিলের সঙ্গে পেরে উঠবে না বেলজিয়ানরা। অক্সফোর্ড ম্যাথমেটিক্যাল মডেলের প্রেডিকশন অনুযায়ী ফাইনালে ব্রাজিলের জেতার সম্ভাবনা রয়েছে প্রায় ৬১ শতাংশ। আর বেলজিয়ামের জেতার সম্ভাবনা দেখিয়েছে প্রায় ৩৯ শতাংশ।