শুক্রবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

চবি শিক্ষক সমিতির খেলা বেলা ১২টায় কেন?

প্রকাশিতঃ বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯, ৯:১৯ অপরাহ্ণ


চবি: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত আন্তঃঅনুষদ শিক্ষক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের সময়সূচী নিয়ে শিক্ষকদের মধ্যেই দেখা দিয়েছে অসন্তোষ। ক্লাস চলাকালীন সময়ে টুর্নামেন্টের সময় নির্ধারণ করায় এ অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। অনেকে এ খেলার সময়সূচি পরিবর্তনের দাবিও জানিয়েছেন।

শিক্ষকরাই বলছেন, শিক্ষার্থীবান্ধব শিক্ষকরা কেন ক্লাস চলাকালীন সময়ে মাঠে খেলাধুলা করবে। শিক্ষক সমিতির এ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা উচিত।

জানা যায়, চতুর্থ বারের মত সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) আন্তঃঅনুষদ শিক্ষক টি-১০ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করে চবি শিক্ষক সমিতি। সোমবার বেলা ১২ টায় চবি শহীদ আবদুর রব হল মাঠে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচের উদ্বোধন করা হয়। অথচ বিশ্ববিদ্যালয়ে বেশিরভাগ বিভাগে ক্লাস-পরীক্ষা পরিচালিত হয় সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানান, চবিতে চতুর্থবারের মত এ খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিদিন বেলা ১২টা থেকে ম্যাচ শিডিউল নির্ধারণ করা হয়েছে। শিক্ষাকার্যক্রম চলাকালীন সময়ে খেলার শিডিউল রাখায় ব্যাহত হতে পারে পাঠদান কার্যক্রম। খেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেও বেশিরভাগ শিক্ষক এ বিষয়ে আপত্তি জানান।

একাধিক শিক্ষক এ বিষয়ে জানান, শিক্ষার্থীদের ক্লাসে রেখে শিক্ষকরা যদি মাঠে খেলাধুলা করেন তা অশোভনীয়। বেলা ১২টা থেকে খেলা শুরু হওয়ায় অনেকগুলো বিভাগে পূর্বনির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ী ক্লাস নেওয়া যাচ্ছে না। এতে করে শিক্ষার্থীদের মধ্যেও শিক্ষকদের ব্যাপারে নেতিবাচক ধারণা তৈরী হচ্ছে। দুপুর আড়াইটার পর থেকে খেলা হলে ক্লাস কিংবা অন্যান্য কার্যক্রমে কোনো সমস্যা তৈরী হত না।

এ বিষয়ে চবি শিক্ষক সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও আন্তঃঅনুষদ শিক্ষক টি-১০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক মনজুরুল আলম বলেন, শিক্ষকদের বিভিন্ন ব্যস্ততা থাকে, তাদের কথা বিবেচনা করেই আমরা বেলা ১২টা থেকে খেলার সময় নির্ধারণ করেছি। এবং পরবর্তী খেলাগুলো এ শিডিউল অনুযায়ীই হবে। যে শিক্ষকেরা বেলা ১২টার খেলায় অংশ নিবে, তারা পূর্বেই তাদের ক্লাস বাতিল করে পরবর্তীতে এসব ক্লাসগুলো নিবেন।

এ বিষয়ে চবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. অলক পালের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোনো মন্তব্য করেননি।

চবি শিক্ষক সমিতি সূত্রে জানা গেছে, এ বছর ৯টি ম্যাচে অংশ নিয়েছে মোট ৬টি টিম। প্রতিটি টিমে ৯ জন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক অংশ নিচ্ছেন। প্রতিদিন বেলা ১২টা ও দুপুর আড়াইটায় প্রতিটি ম্যাচের সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া এ টুর্নামেন্টটি চলবে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। শহীদ আবদুর রব হলের মাঠেই এ টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে।