২৪ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, বৃহস্পতিবার

সুপ্রিম কোর্টের বিবৃতিতে বিস্মিত ও মর্মাহত ল’ রিপোর্টার্স ফেরাম

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, মে ১৬, ২০১৯, ১০:১৭ অপরাহ্ণ


ঢাকা: বিচারাধীন বিষয় নিয়ে কোনো ধরনের প্রতিবেদন না লিখতে সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া বিজ্ঞপ্তিতে বিস্মিত ও মর্মাহত হয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে সাংবাদিকদের সংগঠন ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম (এলআরএফ)।

বৃহস্পতিবার রাতে এ বিষয়ে গণমাধ্যমে একটি বিবৃতি দেয় সংগঠনটি। বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন সংগঠনের সভাপতি ওয়াকিল আহমেদ হিরণ ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল আহসান রাজু।

ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘আইন, আদালত ও সংবিধানবিষয়ক সাংবাদিকদের সংগঠন ল’ রিপোর্টার্স ফোরাম (এলআরএফ) বিস্ময়ের সঙ্গে লক্ষ করেছে যে, আজ বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগে একটি মামলার শুনানিকে কেন্দ্র করে গণমাধ্যমে বিচারাধীন মামলায় প্রতিবেদন প্রকাশ না করতে অনুরোধ জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগ একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে। এ বিজ্ঞপ্তিতে আমরা সাংবাদিকরা ব্যথিত ও মর্মাহত।’

‘দীর্ঘ কয়েক দশক ধরে আদালতে কর্মরত সাংবাদিকরা বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা, জেল হত্যা মামলা ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের মামলার শুনানিতে উপস্থিত থেকে প্রতিবেদন লিখে আসছেন। এর প্রেক্ষিতে দেশের মানুষ মামলার খুঁটিনাটি বিষয় জেনে আসছিল। এর মাধ্যমে বিচার বিভাগের স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠায় সহায়ক ভূমিকা রেখে আসছে গণমাধ্যম। গত ৯ এপ্রিল মাননীয় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এলআরএফ নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষা’কালে তিনি বলেছিলেন, ‘আদালতে যা দেখবেন তাই লিখবেন।’

‘কিন্তু আজ বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মো. গোলাম রাব্বানীর স্বাক্ষরে যে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে, তা মাননীয় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের (৯ এপ্রিলের) বক্তব্যের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এবং স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী বলে মনে করে এলআরএফ।’

‘বিচারাধীন (সাব-জুডিশ) বিষয়ে সংবাদ পরিবেশনের ক্ষেত্রে সবসময় এলআরএফ নিয়ম-নীতিমালা অনুসরণ করে আদালত রিপোর্টিং করে আসছে। এমতাবস্থায় এলআরএফ ওই বিজ্ঞপ্তি প্রত্যাহারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছে।’

এর আগে বুধবার বিকেলে সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। তাতে বলা হয়, বিচারাধীন বিষয় নিয়ে ইলেট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় নিউজ করা অনভিপ্রেত। কোনো মামলার বিচারাধীন বিষয় নিয়ে নিউজ না করতে অনুরোধ জানানো হয়।