বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬

হত্যা মামলায় মাহবুবুর রহমানের মৃত্যুদণ্ড

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জুন ২৭, ২০১৯, ১:২৯ অপরাহ্ণ

ঢাকা : মুক্তিযুদ্ধের সময় দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা ও তার পুত্রসহ সাতজনকে হত্যা মামলায় টাঙ্গাইলের মাহবুবুর রহমানের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। এর আগে উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে গত ২৪ এপ্রিল মামলাটি রায়ের জন্য অপেক্ষমাণ রাখে ট্রাইব্যুনাল।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এর আলদালত এ রায় ঘোষণা করেন। মাহবুব এক সময় জামায়াতে ইসলামীর সমর্থক ছিলেন।

ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশনের তথ্য অনুযায়ী ৭০ বছর বয়সি আসামি মাহবুব একাত্তরে মির্জাপুর শান্তি কমিটির সভাপতি বৈরাটিয়া পাড়ার আব্দুল ওয়াদুদের ছেলে।

মাহবুবুর ও তার ভাই আব্দুল মান্নান সে সময় রাজাকার বাহিনীতে ছিলেন। ১৯৭১ সালের ৭ মে মধ্যরাতে নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় রাজাকারদের সহায়তায় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর ২০-২৫ জন সদস্যকে নিয়ে রণদা প্রসাদ সাহার বাসায় হামলা চালায় মাহবুবুর।

তারা রণদা প্রসাদ সাহা, তার ছেলে ভবানী প্রসাদ সাহাসহ ৭ জনকে তুলে নিয়ে হত্যা করে লাশ শীতলক্ষ্যা নদীতে ফেলে দেয়।

গত বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি এই মামলার আসামি টাঙ্গাইলের মাহবুবুর রহমানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল করে ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন।

তার বিরুদ্ধে অপহরণ, আটকে রেখে নির্যাতন, হত্যা-গণহত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের তিনটি ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হয়।

একুশে/এসসি