বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭

ভারতে মানবহাতে তৈরি হচ্ছে বৃহত্তম বন, জুহি চাওলার প্রচারণা

প্রকাশিতঃ শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০, ৪:১৬ অপরাহ্ণ


আন্তর্জাতিক ডেস্ক : একদিনে রোপিত হবে ২ লাখ দেশীয় গাছের চারা। রচিত হবে নতুন এক ধরনের বিশ্বরেকর্ড। ভারতের মহারাষ্ট্রের পালঘরের ওয়াডাতে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর বেসরকারি সংস্থা ট্রিবক্স ইনিশিয়েটিভ এবং রোটারি ক্লাবের যৌথ উদ্যেগে বাস্তবায়িত হবে এই ব্যাতিক্রমী কর্মসূচী।

নয়াদিল্লীভিত্তিক পরিবেশ সংবাদ সংস্থা ক্লাইমেট সামুরাই জানিয়েছে, সম্পূর্ণ দেশীয় ২ লাখ গাছ একদিনে রোপণ করা হবে ওয়াডার ৯৭ একর উর্বর বনভূমিতে। এটি হবে মানব হাতে তৈরি বৃহত্তম দেশীয় গাছের বন যা মেগা ম্যান-মেড ফরেস্ট ক্যাটাগরিতে বিশ্বরেকর্ড গড়তে যাচ্ছে।

রোটারি ডিস্ট্রিক্ট ৩১৪১ এবং ট্রি বক্সের এই উদ্যোগে ব্র্যান্ড অ্যাম্বেসেডর করা হয়েছে ভারতের বিখ্যাত অভিনেত্রী জুহি চাওলাকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া তাঁর একটি ভিডিওতে দেখা গেছে এই উদ্যেগকে সমর্থন জানাতে জুহি ভারতের নাগরিকদের আহ্বান জানিয়েছেন।

ভিডিওতে তিনি বলেছেন, ”আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নতুন একটি বিশ্ব রেকর্ড হতে যাচ্ছে। ভারতের মুম্বাইয়ের ১০০ কিলোমিটার দূরে ওয়াডাতে একদিনে রোপিত হতে যাচ্ছে বিশ্বের সবর্বৃহৎ মনুষ্য নির্মিত বনের ভিত্তি।“

তিনি জানান, পরবর্তী ৩০ দিনে এই কর্মসূচির আওতায় রোপিত হবে আরো ৮ লাখ চারা। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত লাগানো হবে মোট ১০ লাখ চারা। তাই এই মাসকে বলা হচ্ছে “এ মিলিয়ন গাছের মাস।“

ভিডিওতে জুহি চাওলা আরও জানান, কর্মসূচিতে যেসব গাছ লাগানো হবে সেগুলো সবগুলোই স্থানীয় দেশজ গাছ। যেমন নিম, জাম, আম, বাঁশ, সজ্ঞান গাছের চারা। আগামী কয়েক বছর এসব গাছের দেখাশোনা করবেন স্থানীয় আদিবাসীরা। গাছগুলো যখন ১২ থেকে ১৫ ফুট উচ্চতার হবে তখন তা বন বিভাগের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান জুহি।

এই কর্মসূচিতে ২০০ জনেরও বেশি পেশাদার কৃষক এবং ২০০ জন স্বেচ্ছাসেবক অংশ নিবে বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা। এতে প্রতি গাছে মাত্র ১০০ রুপি দিয়ে একটি গাছ যে কেউ স্পন্সর করার সুযোগ রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ভারতের মধ্যপ্রদেশে এর আগে ২০১৮ সালে ১২ ঘণ্টায় একসাথে ৬৬ লাখ চারা লাগানোর বিশ্বরেকর্ড হয়েছিল। তবে শুধুমাত্র দেশীয় চারা রোপণের বিচারে এবারের কর্মসূচি নতুন এক ধরনের বিশ্বরেকর্ড গড়বে বলে দাবী আয়োজকদের।