বুধবার, ১২ মে ২০২১, ২৯ বৈশাখ ১৪২৮

আত্মহত্যায় প্ররোচনা : বসুন্ধরা গ্রুপের এমডির দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৭, ২০২১, ৪:২০ অপরাহ্ণ

ঢাকা : ঢাকার গুলশানের অভিজাত ফ্ল্যাটে এক কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে পুলিশের করা আবেদন মঞ্জুর করেন।

ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে গুলশান থানার নিবন্ধন কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে আবেদন করেছিলেন গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা আবুল হাসান। আদালত আবেদনটি মঞ্জুর করেছেন। সেই সঙ্গে ইমিগ্রেশন পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন- সায়েম সোবহান আনভীর যেন দেশত্যাগ করতে না পারেন।’

সোমবার (২৬ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর গুলশান এলাকার একটি ফ্ল্যাট থেকে মোসারাত জাহান মুনিয়া নামে এক কলেজ ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ ভোরে ওই শিক্ষার্থীর বড় বোন বাদী হয়ে ‘আত্মহত্যায় প্ররোচনা’র অভিযোগ এনে বসুন্ধরার এমডির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ওই যুবতী তার বোনকে ফোন দিয়ে বলেছিলেন তিনি ঝামেলায় আছেন। তখন তার বোন ঢাকায় আসেন এবং সেই ফ্ল্যাটে যান। ভেতর থেকে দরজা না খোলায়, ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে ভেতরে যাওয়ার পর সিলিং ফ্যানের সঙ্গে তার মরদেহ ঝুলতে দেখা যায়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।

আত্মহননকারী যুবতীকে টেলিফোনে বসুন্ধরা এমডির অকথ্য গালাগাল, ৫০ লক্ষ টাকা পাওনার কথা বলে সেই টাকা দুদিনের মধ্যে ফেরত দেওয়ার চাপ, না দিলে পুলিশ নিয়ে আসাসহ বিভিন্ন হুমকি সম্বলিত ফোনালাপ এবং ওই যুবতীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ বেশকিছু ছবি ও চ্যাটিংয়ের স্ক্রিনশট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনার পর ভাইরাল হয়েছে।