বুধবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮

এসএন শিপইয়ার্ডে এক শ্রমিকের মৃত্যু, আহতের সংখ্যায় লুকোচুরি

প্রকাশিতঃ শনিবার, জুন ১৯, ২০২১, ১০:০১ অপরাহ্ণ

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : সীতাকুণ্ডের মাদামবিবির হাট সমুদ্র উপকূলে অবস্থিত মেসার্স এসএন কর্পোরেশন শিপব্রেকিং ইয়ার্ডে বয়লার বিস্ফোরণে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ হয়ে ১ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত শ্রমিকের নাম রিপন চাকমা (২৬)। সে খাগড়াছড়ির দীঘিনালা এলাকার কালাচাঁদ মিয়া চাকমার পুত্র। একই ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরো তিন শ্রমিক। আহতরা হলেন- ইয়ার্ডের ফিটারম্যান লক্ষীপুর কমলনগর এলাকার মো. সোহেল (২৯), নঁওগা জেলার চন্দা থানার রকেট হোসেন (২৪) ও ফিটারম্যান ঢাকা মিরপুর এলাকার মো. মিন্টু (৪১)।

শনিবার (১৯ জুন) দুপুর আড়াইটায় উপজেলার মাদামবিবিরহাট সমুদ্র উপকূলে অবস্থিত এস এন শিপইয়ার্ডে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার এসএন কর্পোরেশন শীপ ইয়ার্ডে পুরাতন স্ক্র্যাপ জাহাজে দুপুরে বিকট শব্দে বয়লার বিস্ফোরণ হলে জাহাজে কর্মরত ফিটারম্যান ও কাটারম্যানরা এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করে। আগুনের তাপমাত্রা বেশি হওয়ার ঘটনাস্থলে জাহাজের প্লেট কাটার সময় কয়েকজন শ্রমিক আহত হয়। পরে অন্য শ্রমিকরা তাদের উদ্ধার করে চমেকে প্রেরণ করলে কর্তব্যরত ডাক্তার ফিটারম্যান রিপন চাকমাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে এ ঘটনায় আহত অন্য ৩ জন শ্রমিকের অবস্থাও আশংকাজনক বলে জানা গেছে হাসপাতাল সূত্রে।

ইয়ার্ডে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আহতের সংখ্যা আরো বেশি। ঘটনার পর ইয়ার্ড কর্তৃপক্ষ গোপনে বেশ কয়েকজনকে কালো হাইজে লুকিয়ে ফেলে।

এ বিষয়ে এস এন শিপইয়ার্ডের জি এম নাজমুল হোসাইন একুশে পত্রিকার কাছে ১ জন শ্রমিক নিহতের বিষয়টি স্বীকার করলেও ইয়ার্ডের দুর্ঘটনায় কেউ মারা যায়নি বলে জানান ওই প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা সিরাজ উল্লাহ।

তিনি বলেন, জাহাজের লোহা কাটতে গিয়ে দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪ জন শ্রমিক আহত হয়েছে। তবে কারো মৃত্যুর সংবাদ আমরা পায়নি।

সীতাকু- মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম আজাদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। বিস্ফোরণ স্থান থেকে উদ্ধার করে ৪ শ্রমিককে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার একজনকে মৃত ঘোষণা করেন।’ আহতরাও আশংকাজনক বলে তিনি জানান।