রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

লিটনের সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২৭৬ রান

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, জুলাই ১৬, ২০২১, ৫:৩৮ অপরাহ্ণ


খেলাধুলা ডেস্ক : চাপের মুখে দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি লিটন দাসের। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে সঙ্গে নিয়ে বিপদ কাটানো এক জুটি। শেষদিকে নেমে ৩৫ বলে ৪৫ রানের এক ঝড়ো ইনিংস আফিফ হোসেন ধ্রুবর। সবমিলিয়ে হারারেতে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৯ উইকেটে ২৭৬ রানের চ্যালেঞ্জিং পুঁজিই দাঁড় করিয়েছে বাংলাদেশ।

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন জিম্বাবুইয়ান অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। ইনিংসের প্রথম দুই ওভারের কোনো রান তুলতে পারেননি দুই ওপেনার। তৃতীয় ওভারে মুজারাবানির বলে কটবিহাইন্ড হন ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল।

দ্বিতীয় উইকেটে ব্যাট করতে নেমে ইতিবাচক ব্যাটিংই শুরু করেন টাইগার অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। কিন্তু রান তুলতে ব্যস্ত হয়ে গিয়ে ১৯ রানে ফেরেন তিনিও। এবারো ঘাতক ওই মুজারাবানিই। এরপর দলের হয়ে ভালো কিছু করতে পারেননি ডানহাতি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুনও। আউট হওয়ার পূর্বে করেন ১৯ রান। আর মোসাদ্দেক করেছেন ১৫ বলে ১৫ রান।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে দলের হাল ধরেন লিটন দাস। এ সময় দুজন মিলে গড়েন ৯৩ রানের জুটি গড়েছেন। আর তাতেই চাপ সামলে বড় স্কোরের দিকেই এগোতে থাকে। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ আউট হয়েছেন ব্যক্তিগত ৩৩ রানে।

এদিকে আপনতালে ব্যাট করতে থাকা লিটন কুমার দাস তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ ওয়ানডে সেঞ্চুরি। তবে এরপর আর বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি তিনি। এনগারাভার বলে বাউন্ডারি লাইনে ক্যাচ তুলে দেন তিনি। আউট হওয়ার পূর্বে ১১৪ বলে ৮টি চারের মারে করেছেন ১০২।

শেষদিকে অষ্টম উইকেট জুটিতে আফিফ-মিরাজ মিলে মাত্র ৪২ বলে ৫৮ রানের একটি কার্যকরী পার্টনারশিপ গড়েন। ৩৫ বলে ৪৫ রান তুলে আউট হন আফিফ। আর ২৫ বলে ২৬ রান করেন মিরাজ। এদিকে সাইফউদ্দিন ৮ রানে এবং শরিফুল শূন্যরানেই অপরাজিত থাকেন।

জিম্বাবুয়ের পক্ষে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নেন লুক জংইউ। এছাড়া দুটি করে উইকেট পেয়েছেন ব্লেসিং মুজারাবানি ও রিচার্ড এনগারাভা।