বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

তাপদাহ চলবে আরও কয়েক দিন

প্রকাশিতঃ Saturday, May 13, 2017, 1:01 pm

ঢাকা: দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে বয়ে চলা মৃদু তাপপ্রবাহ আরও কয়েকদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলছেন আবহাওয়াবিদরা। এদিকে বৈশাখ শেষে শুরু হওয়া এই তাপদাহের মধ্যে রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে।

আগামীকাল সকাল ৯টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এছাড়া ফরিদপুর, মাদারীপুর, সীতাকুন্ড, রাঙ্গামাটি, মাঈজদীকোর্ট, ফেনী, রাজশাহী, খুলনা, মংলা, সাতক্ষীরা, যশোর, বরিশাল, খেপুপাড়া ও ভোলা অঞ্চলসমুহের উপর দিয়ে মৃদু তাপ প্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা প্রশমিত হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আজ সকাল ৬টায় ঢাকায় বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতা ছিল ৭৬ শতাংশ। এদিকে আগামী ৭২ ঘন্টায় আবহাওয়ার অবস্থা সম্পর্কে জানানো হয়েছে, সামান্য পরিবর্তন হতে পারে। আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়, লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থ্ান করছে, যার বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, মে মাসে দেশের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এক থেকে দুটি তীব্র এবং অন্যত্র দুই থেকে তিনটি মৃদু বা মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। থার্মোমিটারের পারদ চড়তে চড়তে যদি ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠে, আবহাওয়াবিদরা তাকে মৃদু তাপপ্রবাহ বলেন। উষ্ণতা বেড়ে ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস হলে তাকে বলা হয় মাঝারি তাপপ্রবাহ। আর তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়ে গেলে তাকে তীব্র তাপপ্রবাহ হিসেবে বিবেচনা করে আবহাওয়া অফিস।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার থেকে দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে জানিয়ে আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যশোরে ৩৬ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস; বৃহস্পতিবার সেখানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৈশাখের শেষে এসে সর্বত্র অস্বস্তিকর গরম বিরাজ করছে। ফরিদপুর, মাদারীপুর, সাতক্ষীরা, রাঙ্গামাটি, মাইজদীকোর্ট, ফেনী, রাজশাহী, খুলনা, মংলা, সাতক্ষীরা, যশোর, বরিশাল, খেঁপুপাড়া ও ভোলায় এই তাপদাহ চলছে জানিয়ে তিনি বলেন, তা অব্যাহত থাকতে পারে।

আবহাওয়াবিদ বলেন, কোথাও কোথাও বৃষ্টি হওয়ায় তাপমাত্রাও কমতে থাকবে, তবে অস্বস্তিকর গরম সহজে ছাড়ছে না। ফের চলতি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে গিয়ে তাপমাত্রা বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। এ সময় মৃদু তাপপ্রবাহ আবার শুরু হতে পারে। চলতি মৌসুমে এটা তৃতীয় দফা মৃদু তাপদাহ চলছে। এর আগে মে মাসের দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাসে দেশের বিভিন্ন স্থানে কয়েকটি তাপপ্রবাহের কথা জানিয়েছিল আবহাওয়া অধিদপ্তর।