মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮

‘খালেদার পাশেই জঙ্গিরা ঘোরাফেরা করে’

প্রকাশিতঃ রবিবার, জুলাই ৩, ২০১৬, ৬:৪৩ অপরাহ্ণ

Hasan mahmudঢাকা: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘গুলশানের স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজানে যে বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ঘটেছে এর সঙ্গে আইএসের সম্পৃক্ততা নেই। অতীতের জামায়াত-শিবির এখন বিভিন্ন নামে এই সব হামলার ঘটনা ঘটাচ্ছে।’

রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গুলশানের জঙ্গি হামলার প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ নামের একটি সংগঠন এ মানববন্ধনের আয়োজন করে।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘হামলাকারীরা অতীতে জামায়াত-শিবির ছিল। দেশের অগ্রগতি রুখতেই দেশি বিদেশি চক্র ও জামায়াত শিবিরের ষড়যন্ত্রেই এই জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটানো হচ্ছে। এসব হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত জঙ্গিরা সব সময় খালেদার পাশেই বসে থাকে এবং তার চারপাশ ঘিরেই এসব জঙ্গিদের অবস্থান।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ যখন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে, ঠিক তখনই এই গতিকে থমকে দিতে নানাভাবে ষড়যন্ত্র শুরু করেছে তারা। কিন্তু আমরা ষড়যন্ত্রকে ভয় পাই না। দেশের জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এসব মোকাবেলা করবো।’

এসময় তিনি দলমত নির্বিশেষে স্বাধীনতার স্বপক্ষের সব শক্তির সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধভাবে সংকট মোকাবেলার কথা বলেন।

গুলশানে স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, ‘ইসলামের নামে যারা এ হামলা করেছে তারা ইসলামের শত্রু। এ জঘন্য হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে এরা ইসলামের গায়ে কালিমা লেপন করেছে। আমাদের প্রিয় রাসূল (সা.) নিরীহ মানুষকে হত্যা সমর্থন করেননি। এমনকি যুদ্ধক্ষেত্রেও সমর্থন করেননি।’

এ সময় নিহত জঙ্গি পরিবারের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের সন্তান যে অপকর্ম করেছে, এর দায়ভার আপনারা কোনোভাবে এড়াতে পারেন না। যারা গুলশানে এই বর্বরোচিত হামলা ঘটিয়েছে, আমাদের কাছে তথ্য আছে, তারা মাদ্রাসা বা গরিব ঘরের সন্তান নয়। এরা সমাজের উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তান।’

মানববন্ধনে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য দেন, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক ফজলুল হক, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি হাসিবুর রহমান মানিক, সহসভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।