মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

“জমে উঠেছে মেলা, বিকেলে বলি খেলা”

প্রকাশিতঃ বুধবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৮, ১২:২৮ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী লালদিঘী ময়দানে জব্বারের বলী খেলার ১০৯তম আসর বসছে আজ (বুধবার) বিকেলে। প্রতি বছর ১২ বৈশাখে এ অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে ইতোমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে আয়োজক কমিটি।

এদিকে বলী খেলাকে কেন্দ্র করে লালদীঘি ও আশপাশের প্রায় তিন বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে অন্যরকম আবহ। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিভিন্ন পণ্যের পরসা সাজিয়েছেন মৌসুমী ব্যবসায়ীরা। ক্রেতা আর দর্শণার্থীদের আগমে জমে উঠেছে বৈশাখী মেলা।

এবারও শতাধিক বলী অংশ নেবেন বলে আমরা আশাবাদ ব্যক্ত করে জব্বারের বলী খেলা ও বৈশাখী মেলা আয়োজক কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ জামাল হোসেন বলেন, ‘আমাদের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন। বলীখেলা উপলক্ষে স্থানীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছে। এবারের উৎসব সুষ্ঠু ও সফলভাবে সম্পন্ন করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। এবারও শতাধিক বলী অংশ নেবেন বলে আমরা আশাবাদী।’

ছবি : আকমাল হোসেন।

সরজমিনে দেখা যায়, চট্টগ্রাম নগরীর আন্দরকিল্লা মোড় থেকে কোতোয়ালী মোড়, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকা থেকে জেল রোড সব জায়গায় উৎসকে কেন্দ্র করে আসা মৌসুমী ব্যবসায়ীদের দখলে। বাদ যায়নি কোর্ট রোড, লয়েল রোড, পুরনো গির্জা, কেসি দে রোডসহ আশপাশের এলাকাও। রাস্তা, ফুটপাত, আইল্যান্ডসহ সব জায়গায় বসানো হয়েছে নানা পণ্যের পসরা।

মেলায় হাতপাখা, শীতল পাটি, বাঁশি, হস্তশিল্প, বেতের ফার্নিচার, মৃৎশিল্প, মাটির কলস, চুড়ি, ফিতা, রঙিন সুতা, হাতের কাঁকন, নাকের নোলক, মাটির ব্যাংক, ঝাড়ু, খেলনা, ঢোল, শিশুদের নানা ধরনের খেলনা, বাহারি চুড়ি, গৃহস্থালী সামগ্রী, প্লাস্টিক সামগ্রী, কুটির শিল্প, মুড়ি-মুড়কিসহ বিভিন্ন ফলদ ও বনজ চারাসহ নানা ধরনের সামগ্রী নিয়ে জড়ো হয়েছে বিক্রেতারা।

বলী খেলা ও বৈশাখী মেলাকে ঘিরে লালদিঘী ময়দানে নাগরদোলা, সার্কাস ও বিচিত্র অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে। নগর পুলিশের বিশেষ শাখা সূত্র জানায়, বলী খেলা উপলক্ষে ব্যাপক নিরাপত্তা পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। ২৪০ জন পুলিশ সদস্য লালদিঘীর আশপাশে মোতায়েন করা হয়েছে।

বলীখেলার ১০৯তম আসরে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। আসরের উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) কমিশনার মো. ইকবাল বাহার। বিশেষ অতিথি থাকবেন স্পন্সর বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের রিজিওনাল ডিরেক্টর সৌমেন মিত্র। উপস্থিত থাকবেন জব্বারের বলীখেলা ও বৈশাখী মেলা কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর জহরলাল হাজারী ও সাধারণ সম্পাদক শওকত আনোয়ার বাদলসহ আয়োজক কমিটির অন্যান্য সদস্য।

একুশে/এএ