বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১

বুদ্ধ পূর্ণিমায় বিশ্ব শান্তি কামনায় চট্টগ্রামে শোভাযাত্রা

প্রকাশিতঃ ২৯ এপ্রিল ২০১৮ | ১০:৩৮ পূর্বাহ্ন

চট্টগ্রাম : মহামতি গৌতম বুদ্ধের জন্ম, বুদ্ধত্বলাভ ও মহাপরিনির্বাণ এর ত্রি-স্মৃতি বিজরিত ‘বুদ্ধ পূর্ণিমা’ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও দিনব্যাপী নানান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে পালন করছে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে শান্তি শোভাযাত্রা, জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, বুদ্ধপূজা, পঞ্চশীল ও অষ্টশীল গ্রহণ, মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও ধর্মীয় আলোচনা সভা।

বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে রোববার (২৯ এপ্রিল) সকাল সাড়ে নয়টা বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতির উদ্যোগে নগরীর নন্দনকানন বৌদ্ধবিহার থেকে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়ে নগরীর বিবিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করছে। বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন।

শোভাযাত্রায় বিভিন্ন বৌদ্ধ ধর্মীয় সংগঠন ও সামাজিক সংগঠন অংশ নেয়। এরমধ্যে বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতি, বৌদ্ধ সমিতি (যুব), বৌদ্ধ সমিতি (মহিলা), বাংলাদেশ বুডিস্ট ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন, বুডিস্ট ইয়ুথ ফেস্টিভাল গ্রুপ, অর্হৎ বনভান্তে সদ্ধর্ম উন্নয়ন উপাসক-উপাসিকা পরিষদ, কন্হক বুডিস্ট ইউনিটি, ত্রিরত্ন সংঘ উল্লেখযোগ্য।

‘জগতের সকল প্রাণী সুখী হোক’, ‘অহিংসা পরম ধর্ম’, ‘যুদ্ধ নয় শান্তি চাই’, ‘মিত্রতার দ্বারা শত্রুকে জয় করা যায়’ এরূপ লেখা সম্বলিত ফেস্টুন হাতে শোভাযাত্রায় হাজারো বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা অংশ নিয়েছেন।

এছাড়াও নগরীর কাতালগঞ্জ বৌদ্ধবিহার, দেবপাহাড় পূর্ণাচার আন্তর্জাতিক বৌদ্ধবিহারসহ সকল বৌদ্ধবিহারে নানান কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

বুদ্ধ পূর্ণিমার অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে অষ্টবিংশতি বুদ্ধপূজা, শীল গ্রহণ, পিন্ডদান, ভৈষজ্য দান। বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে সূত্রপাঠ ও একক সদ্ধর্মদেশনা। একক সদ্ধর্মদেশনা করবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও জাপানের আইটি গাক্কুইন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ভিজিটিং অধ্যাপক, প্রাবন্ধিক, লেখক, গবেষক ড. জ্ঞানরত মহাস্থবির।

একুশে/এএ