২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, বুধবার

‘মেয়র ম্যাজিক দেখালেন, আমি অভিভূত’

প্রকাশিতঃ সোমবার, মার্চ ১১, ২০১৯, ৭:০২ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম : এককথায় ম্যাজিকের মতো জায়গা দিয়ে দিলেন মেয়র। আমি অভিভূত। শ্রদ্ধায় অবনত। আজকের ঘটনার মধ্যদিয়ে তার প্রতি আমার কৃতজ্ঞতা যেমন বাড়লো, তেমনি বেড়ে গেলো শ্রদ্ধাবোধ।

সোমবার (১১ মার্চ) শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন ও জেলা পর্যায়ে আইটি/হাইটেক পার্ক স্থাপন (১২ জেলা) প্রকল্পে জমি প্রদানকারি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) সঙ্গে হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সমঝোতা স্মারক অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার এভাবেই মেয়র সম্পর্কে তাঁর অভিব্যক্তির কথা তুলে ধরেন।

মন্ত্রী বলেন, হাইটেক পার্কের জন্য জায়গা প্রদান করার প্রয়োজনীয়তা বিষয়ে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন আইসিটির গুরুত্ব উপলব্ধি করতে পেরেছেন। আগামীতে দেশের প্রযুক্তিভিত্তিক উন্নয়নে আইসিটির উপযোগিতা তিনি গভীরভাবে অনুভব করেছেন। তাই এককথায় তিনি ম্যাজিকের মতো জায়গা দেখালেন। আমি অভিভূত হলাম। কোনো প্রশ্ন, শর্ত ও বিধিবিধান ছাড়া একবাক্যে জায়গা দিয়ে দিলেন। এতে করে মেয়রের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের পাশাপাশি আমার শ্রদ্ধাবোধও বেড়ে গেল। চান্দগাঁওয়ের জায়গাটাতে হাইটেক পার্কের সাথে আরো অনেক কিছু করা যাবে। আমাদের পরিকল্পণাগুলো বাস্তবায়ন সহজ হবে।

একই অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, চট্টগ্রাম বন্দরনগর, বাণিজ্যিক রাজধানী। এ নগরের মেয়র আইটি পার্কের জন্য জমি বরাদ্দ দিয়েছেন। আজ আনন্দের দিন। বন্দরনগর দু-এক বছরে প্রযুক্তিনগরে পরিণত হবে। শিক্ষিত তরুণ-তরুণীর জ্ঞানভিত্তিক কর্মসংস্থান হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ব্রিটিশ, পাকিস্তানবিরোধী আন্দোলন ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে চট্টগ্রামের ভূমিকা অপরিসীম। ১০ বছরে ডিজিটাল বাংলাদেশ শক্ত ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়েছে। ১০ বছর আগে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল ৫৬ লাখ, এখন ১০ কোটি। শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব হয়েছে ৯ হাজার। আরও হবে ২৫ হাজার ৫০০টি। চসিকের কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বাকি থাকবে না।