মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬

মিথিলার অন্তরঙ্গ ছবি নিয়ে মুখ খুললেন তারকারা

প্রকাশিতঃ মঙ্গলবার, নভেম্বর ৫, ২০১৯, ৯:২৬ অপরাহ্ণ


বিনোদন ডেস্ক : টিভিপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিথিলা ও নাট্য পরিচালক ইফতেখার আহমেদ ফাহমির কিছু ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া নিয়ে শোবিজ অঙ্গনে চলছে নানান সমালোচনা-গুঞ্জন। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অন্যান্য তারকারাও স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) এ নিয়ে মুখ খুলেছেন মিথিলা। গণমাধ্যমে তিনি জানান, কারও ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে এভাবে চর্চা করা অপরাধ। ব্যক্তিগত ছবি বিনা অনুমতিতে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার প্রকাশ করা সাইবার ক্রাইম। আর যে ছবি নিয়ে এত তোলপাড় হচ্ছে, সেটা এমন অস্বাভাবিক কোনো ছবি নয়। যারা সমালোচনা করছেন তাদের বলব, তারা যেন আয়নায় নিজেদের চেহারা দেখেন।

এদিকে বিষয়টিকে ভালোভাবে গ্রহণ করেননি ‘মিস আয়ারল্যান্ড’ মাকসুদা আক্তার প্রিয়তিও। এ অভিনেত্রী তার ফেসবুকে লিখেছেন, ভালোবেসে প্রেমিককে চুমু খেয়েছি, প্রেমিকের বুকে মাথা রেখে প্রাণ জুড়িয়েছি, তাতে কার বাপের কী , মায়ের কী বা চৌদ্দগুষ্ঠির কী? কেউ পাবলিক ফিগার বা জনপ্রিয় হলে তার ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলো বা ভালোবাসার অধিকার কি উধাও হয়ে যেতে হবে? উনাকে আপনাদের কাস্টোমাইজড অনুযায়ী ফাঙ্কসোনাল অমানব/রোবট হয়ে যেতে হবে?

যেন আপনারা সবাই ধোয়া তুলশী পাতা! আদরে, ভালোবাসায় আবিষ্ট থাকতে সবাই চায়, সবাই ভালোবাসে। বোঝা গেলো? বুঝলে বুঝ পাতা, আর না বুঝলে…?

মন্তব্য করেছেন অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভাও। ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসে প্রভা লিখেছেন, ‘কারো ব্যক্তিগত মুহূর্তের ছবি শেয়ার বা পোস্ট করা, এথিকালি কোন রাইট আপনি রাখেন না; বিকৃত মানসিকতার আমূল পরিবর্তন হোক…’।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট ভালোবেসে তাহসানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মিথিলা। আইরা তেহরীম খান তাহসান-মিথিলা দম্পতির একমাত্র সন্তান। এরপর দুজনের বনিবনা না হওয়ায় ২০১৭ সালের মাঝামাঝি সময়ে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর গায়ক ও অভিনেতা তাহসানের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর আলোচনায় আসেন মিথিলা। পরে আবার জন কবির ও ওপার বাংলার পরিচালক সৃজিত মুখার্জির সাথে মিথিলা প্রেমের সম্পর্কে জড়ান বলে শোনা যায়। এদিকে সৃজিত ও মিথিলাকে অনেকবারই একসাথে দেখা গিয়েছে। সেই আলোচনার রেশ কাটতে না কাটতেই নতুন করে আবারও আলোচনায় চলে আসেন তিনি। ইফতেখার আহমেদ ফাহমির পেজ থেকে তাদের অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশ করা হলে সেটি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

একুশে/এএ