বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

পথচলার ৩০ বছরে প্রমা আবৃত্তি সংগঠন

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৯, ২:০৯ পূর্বাহ্ণ

চট্টগ্রাম :  “ধনধান্য পুষ্পভরা আমাদের এই বসুন্ধরা তাহার মাঝে আছে দেশ এক সকল দেশের সেরা”– উদ্বোধনী আবৃত্তিতে প্রমা’র শিল্পীদের শতকণ্ঠে আবৃত্তির মাঝে ভেসে আসছিল কবি দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের কবিতার চরণগুলো।

হাঁটি হাঁটি পা পা করে ২৯ বছর পার করে ৩০ বছরে পা দিল প্রমা আবৃত্তি সংগঠন। ২৯ নভেম্বর প্রমার জন্মদিন উপলক্ষে তিনদিন ব্যাপী বণার্ঢ্য আয়োজন চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমীর মুক্তমঞ্চে। আবৃত্তি, কথামালা আর সাংস্কৃতিক আয়োজনের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের ২৯ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানমালা।

বৃহস্পতিবার (২৮ নভেম্বর) বিকালে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ২৯ বছরের পথচলার পরিক্রমায় প্রমার সঙ্গে যাঁরা ছিলেন তাঁদের অনেকেই যোগ দিয়েছেন এ আয়োজনে। শুরুতে না ফেরার দেশে থাকা সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব নিখিল সেন ও আবৃত্তিশিল্পী কামরুল হাসান মঞ্জুর স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। গান, কবিতাপাঠ ও কথামালার ফাঁকে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন অতিথিরা।

প্রমা’র সভাপতি রাশেদ হাসান ও সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ পালের সঞ্চালনায় তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম অধিবেশনে উদ্বোধক ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন শহীদ জায়া ও ভগ্নি বেগম মুশতারী শফী, দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক, কবি ও সাংবাদিক আবুল মোমেন, ভারতীয় হাই কমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জী, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের হাসান আরিফ, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সভাপতিমন্ডলীয় সদস্য শিমুল মুস্তফা, বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহকাম উল্লাহ।

বক্তারা গত ২৯ বছর ধরে আবৃত্তিশিল্পের বিকাশের পাশাপাশি সকল প্রগতিশীল আন্দোলনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে অসাম্প্রদায়িক, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখায় প্রমার ভূয়সী প্রশংসা করেন।

সৈয়দ হাসান ইমাম সুন্দর সমাজ নির্মাণে শহর কেন্দ্রিক সংস্কৃতি চর্চাকে তৃণমূলে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন,’ আমরা সোনার মানুষ গড়ার কাজে লিপ্ত থাকবো আর আপনারা সোনার দেশ গড়ার কাজে লিপ্ত থাকবেন।’

প্রমা অবন্তীর পরিচালনায় উদ্বোধনী নৃত্য পরিবেশেন করে ওডিসি এন্ড টেগোর ডান্স সেন্টার। ঢোলবাদনে ছিলেন স্বপন দাশ ও তার দল।

অনুষ্ঠানে একক আবৃত্তি করেন আমন্ত্রিত আবৃত্তি শিল্পী মোকাদ্দেস বাবুল, দুলাল দাশগুপ্ত, কাজী মাহতাব সুমন, শামস উল আলম মিঠু, শাহাদাত হোসেন লিটন, আয়শা হক শিমু, ফয়জুল্লাহ সাঈদ, জি এম মোরশেদ, জালাল উদ্দিন হীরা, সাইমুম আনজুম ইভান।

কবিতাপাঠ করেন স্বপন দত্ত, ফাউজুল কবির, ওমর কায়সার, এজাজ ইউসুফী, বিজন মুজমদার, হোসাইন কবির, কামরুল হাসান বাদল এবং নাজিমুদ্দীন শ্যামল।

প্রথমেই সংগঠনের শিশু বিভাগের শিল্পীরা বৃন্দ আবৃত্তি শুনিয়ে মুগ্ধ করে দর্শকদের। এরপর অনুষ্ঠানে দলীয় আবৃত্তি পরিবেশন করে চট্টগ্রাম আবৃত্তি চর্চা কেন্দ্র ও প্রমা আবৃত্তি সংগঠন।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন কিশোয়ার জাহান চৌধুরী তুলি ও পার্থ প্রতিম মহাজন।