শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬

পাহাড় কেটে, কবরস্থানের অস্তিত্ব নষ্ট করে ভাড়াঘর নির্মাণ!

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ১৬, ২০২০, ৩:১৬ অপরাহ্ণ

জিন্নাত আয়ুব, আনোয়ারা : আনোয়ারা উপজেলার বারখাইন ইউনিয়নের হাজীগাঁও এলাকায় পাহাড় সমতল করে এবং খাস জমিতে ভাড়াঘর নির্মাণ করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্য আজগরের বিরুদ্ধে। 

অভিযোগের ভিত্তিতে ওই এলাকায় সরেজমিনে গিয়ে বিষয়টার সত্যতা পাওয়া গেছে। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, পাহাড় কেটে ভাড়াঘর নির্মাণ করা খাস জায়গাটি টিলা হিসেবে জনৈক শামসুল আলম ও নুরুল আমিন সওদাগর থেকে মৌখিকভাবে দখল কিনে নেন ইউপি সদস্য আজগর। পাহাড়টিতে শিশুদের কবরস্থানও রয়েছে। ইউপি সদস্য আজগর ঘরকরতে গিয়ে কবরস্থানের অস্তিত্বও নষ্ট করে ফেলেছেন বলে জানান স্থানীয়রা। তবে আজগর মেম্বার কবরস্থান থাকার কথা অস্বীকার করেন।

তিনি ভাড়াঘরগুলো তার মালিকানাধীন স্বীকার করে বলেন, দুইবছর আগে এসিল্যান্ড-এর অনুমতিক্রমে টিলা সমান করে এই ঘরগুলো নির্মাণ করেছি। এইগুলো আমার দাগের জায়গা। এতোদিন পর কেন আপনারা এগুলো নিয়ে মাথা ঘামাতে আসলেন। প্রতিবেদক কাগজপত্র আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বিষয়টা কয়েকজন সাংবাদিক অবগত আছেন। আপনি ওদের কাজ থেকে জেনে নিন।’

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সাইদুজ্জামান চৌধুরী বলেন, খাস জায়গায় ঘর নির্মাণের অনুমতি দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। বিষয়টা আমি খতিয়ে দেখছি।

আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ জুবায়ের আহমদ বলেন, খাস জায়গায় ও পাহাড় কেটে ঘর করা অপরাধ। এই বিষয় আপনার কাছ থেকে অবগত হলাম, তদন্ত সাপেক্ষে এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।