বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬

চট্টগ্রামে ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ২১ মার্চ হাম রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন

প্রকাশিতঃ বুধবার, জানুয়ারি ২২, ২০২০, ৭:৪৯ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম : চট্টগ্রামেও আগামী ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ২১ মার্চ হাম রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন পালিত হবে। এবারের টিকাদান ক্যাম্পেইন কার্যক্রমের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে ‘আয় আয় সোনমণি টিকা নিয়ে যা’।

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি আজ চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইন প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এসময় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. ওয়াজেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. অসীম কুমার নাথ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন কার্য়ালয়ের রোগ নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা ডা. মো.নুরুল হায়দার। এসময় ইপিআই তত্বাবধায়ক মো. হামিদ আলী, জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়াসহ সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে জানানো হয় চট্টগ্রাম জেলার ১৪টি উপজেলায় ১৩ লক্ষ ৭২ হাজার এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন এলাকায় ৭ লক্ষ ৫৩ হাজার শিশুকে এমআর টিকা দেওয়া হবে।

হাম-রুবেলা টিকাদান ক্যাম্পেইনে সারা দেশের ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী প্রায় ৩ কোটি ৪০ লক্ষ শিশুকে এক ডোজ এমআর টিকা প্রদান করা হবে। এ ক্যাম্পেইন শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত একনাগাড়ে তিন সপ্তাহ চলবে। প্রথম সপ্তাহে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং ২য় ও তৃতীয় সপ্তাহে কমিউনিটি টিকাদান কেন্দ্রে ক্যাম্পেইন কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময় রুটিন ইপিআই টিকাদান সেশন প্ল্যান অনুযায়ী চলমান থাকবে এবং কমিউনিটি ক্লিনিক যথানিয়মে চলবে। প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়ে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত টিকাদান ক্যাম্পেইন চলবে।

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, হাম-রুবেলা ভাইরাসজনিত দুটি রোগ। এ রোগ সাধারণত একজন আক্রান্ত রোগীর হাঁচি-কাশির মাধ্যমে তার সংস্পর্শে আসা অন্যান্যদের মধ্যেও অতি দ্রুত ছড়ায়। সে জন্য শিশু ছাড়াও যে কোন বয়সের মানুষের হাম-রুবেলা হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, একজন গর্ভবতী মা প্রথম তিন মাসের সময় রুবেলা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে শতকরা ৮০ ভাগ ক্ষেত্রে গর্ভের শিশু হাম-রুবেলায় আক্রন্ত হতে পারে।