বুধবার, ৩ মার্চ ২০২১, ১৯ ফাল্গুন ১৪২৭

‘জুনের মধ্যে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ১০ হাজার ইএফডি বসবে’

প্রকাশিতঃ শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২১, ৭:৩২ অপরাহ্ণ


ঢাকা : আগামী জুনের মধ্যে দেশের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ১০ হাজার ইলেকট্রনিক ফিসক্যাল ডিভাইস (ইএফডি) বসানো হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

শুক্রবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় রাজস্ব ভবন সভাকক্ষে ইএফডির প্রথম লটারি ড্র অনুষ্ঠানে তিনি এ তথ্য জানান। এনবিআর চেয়ারম্যান লটারি কার্যক্রম পরিচালনা রকরেন।

রহমাতুল মুনিম বলেন,চলতি ফেব্রুয়ারির মধ্যে তিন হাজার, মার্চে চার হাজার এবং জুনের মধ্যে দশহাজার ইএফডি মেশিন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বসানো হবে। আমরা এর জন্য ব্যপক প্রচারনা চলানোর প্রস্তুতি নিয়েছি। ঢাকা ও চট্টগ্রাম নগরীর বাইরে অন্যান্য শহরেও ইএফডি মেশিন বসানো হবে বলে তিনি জানান।

১ জানুয়ারি থেকে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত যেসব গ্রাহকরা ইএফডি মেশিন থেকে কেনাকাটা করেছেন, তাদের জন্য আজ স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ইএফডি থেকে পণ্য কেনার পর গ্রাহকরা যে রশিদ পেয়েছেন, সেটাই কুপন হিসেবে গণ্য করে লটারি করা হয়।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘একটি অনাস্থার জায়গা ছিল দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছিল। জনগণ যে ভ্যাট দিচ্ছেন তার টাকা সরকারি কোষাগারে ঠিকমতো জমা হচ্ছে কি-না। দীর্ঘদিন ধরে এটা নিয়ে অস্বস্তির জায়গা ছিল আমাদের। এই অনাস্থা ইএফডি মেশিন আসার পর কেটে গেছে। মাত্র আমরা শুরু করেছি । আরও অনেক দূর এগোতে হবে আমাদের।’

দেশবাসীকে ভ্যাট প্রদানের আহবান জানিয়ে তিনি আরও বলেন,‘জনগণের কাছে অনুরোধ আপনারা ভ্যাট দিন। আমরা আপনাদের ভ্যাট প্রদান সহজ করে দিব। যত বেশি ভ্যাট আসবে, তত বেশি ভ্যাট হার কমাতে পারবো। আমরা ভ্যাট প্রদানকে আনন্দের পরিবেশে নিয়ে আসবো।’

ইএফডির প্রথম লটারিতে মোট ১০১টি পুরস্কার দেওয়া হয়। প্রথম পুরুস্কার বিজয়ী এক লাখ টাকা, দ্বিতীয় পুরস্কার বিজয়ী ৫০ হাজার ও তৃতীয় পুরুস্কার বিজয়ী পান ২৫ হাজার টাকা (৫টি)। বাকী ৯৮জন বিজয়ী ১০ হাজার টাকার পুরুস্কার জিতে নেন। প্রথম পুরস্কার হিসেবে কর মুক্ত এক লাখ টাকা পেয়েছেন 02221GEMMWAK039 নাম্বার কুপন, দ্বিতীয় পুরস্কার 001820SPXYAOH781 নাম্বার কুপন, তৃতীয় পুরস্কার 002120DXEDECM637 নাম্বার কুপন।

লটারি ড্র ঘোষণার ৩ কর্মদিবসের মধ্যে কুপনের নাম্বার রাজস্ব বোর্ডের ওয়েবসাইট ও জাতীয় দৈনিকে প্রকাশ করা হবে। বিজয়ীকে পুরস্কারের জন্য যে কোন কাস্টমস, এক্সইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটে এনবিআরের নির্ধারিত ফরমে আবেদন করতে হবে। যে মাসে লটারি ড্র হবে সে মাসের শেষ কর্মদিবসের মধ্যে পুরস্কারের জন্য আবেদন করতে হবে।

এছাড়া পুরুস্কার পেতে কোনো সমস্যা হলে ০১৯৬৩৬৩৬৫৫৪ নাম্বারে যোগাযোগ করতে অনুরোধ জানিয়েছে এনবিআর।