শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮

রিপোর্টারদের বিচিত্র অভিজ্ঞতা নিয়ে বই ‘রিপোর্টারের গল্প’

প্রকাশিতঃ বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ৮, ২০২১, ৭:৩৪ অপরাহ্ণ


চট্টগ্রাম : অমর একুশে বইমেলায় পাওয়া যাচ্ছে নাগরিক টিভির সিনিয়র রিপোর্টার একে আজাদ সম্পাদিত ‘রিপোর্টারের গল্প’ গ্রন্থটি। আবদুল্লা মারুফ রুসাফীর প্রচ্ছদে গ্রল্প গ্রন্থটি প্রকাশিত হয়েছে দাঁড়িকমা প্রকাশনী থেকে। গ্রন্থটি উৎসর্গ করা হয়েছে মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশের পক্ষে জনমত গঠনে অসামান্য ভূমিকা পালনকারী বিবিসির সাংবাদিক র্মাক টালিকে।

সম্পাদক একে আজাদ ছাড়াও গ্রন্থটিতে লিখেছেন, জনকণ্ঠের মাকসুদ আহমেদ, একুশে পত্রিকার সিনিয়র রিপোর্টার মোহাম্মদ রফিক, বাংলাদেশ প্রতিদিনের মো. সেলিম, সাংবাদিক রুবেল খান, পূর্বকোণের ইফতেখারুল ইসলাম, বাংলাধারার ফেরদৌস শিপন, যুগান্তরের মিজানুল ইসলাম, দীপ্ত টিভির লতিফা আনসারী রুনা, আজাদীর মোরশেদ তালুকদার, সাংবাদিক মিজানুর রহমান ইউছুপ, আজকের পত্রিকার ফায়সাল করিম, নিউজ টুয়েন্টি ফোরের নয়ন বড়ুয়া জয়, সময় টিভির শফিকুল আলম, জিটিভির তৌহিদুল আলম।

গ্রন্থটিতে ২২ টি গল্পে ফুটে উঠেছে রিপোর্টারদের পেশাগত জীবনের বিচিত্র অভিজ্ঞতা ও অনুভূতি। সাংবাদিক একে আজাদ জানান, বইটি পড়ে পাঠক সাংবাদিকদের জীবনের পথচলার নানান দিক সর্ম্পকে জানতে পারবেন, পাশাপাশি নবীন সাংবাদিকরা কিভাবে তাদের পথ সুগম করবে, কিছুটা হলেও ধারণা রপ্ত করতে পারবেন। ঢাকা বই মেলার ৪৫৭ নং স্টলে বইটি পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া চট্টগ্রামের বাতিঘর এবং নন্দনে বইটি পাওয়া যাবে। পাঠকরা রকমারি ডট কম থেকেও বইটি সংগ্রহ করতে পারবেন।

সাংবাদিক একে আজাদ এর আগে বৈশাখী টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার, এশিয়ান টিভি এবং বাংলা টিভির সিনিয়র রিপোর্টারের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সহ চট্টগ্রামের স্থানীয় এবং বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিক ও অনলাইন নিউজ পোর্টালে কাজ করেছেন। রিপোটিং এর পাশাপাশি টেলিভিশনে টক শোর উপস্থাপক হিসেবে বেশ পরিচিতি আছে তার। তার উপস্থাপনায় বাংলা টিভিতে ‘চট্টগ্রাম সংলাপ’ এবং নাগরিক টিভিতে “বন্দর নগরী” টক শো ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা পায়। তিনি বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন, চট্টগ্রাম সাংবাদিক হাউজিং সোসাইটি, চট্টগ্রাম রিপোর্টাস ফোরাম সহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে জড়িত।