মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ৫ মাঘ ১৪২৮

আমি যদি মরে যাই, তাহলে ভাববেন খুন হয়েছি : পরীমনি

প্রকাশিতঃ সোমবার, জুন ১৪, ২০২১, ১২:৪৫ পূর্বাহ্ণ


ঢাকা : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগের পর সংবাদ সম্মেলনে এসে নিজের জীবনের সংশয়ের কথা জানালেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের অন্যতম নায়িকা পরীমনি।

নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনে পরীমনি বলেন, ‘আমাকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। চারদিন ধরে থানায় ঘুরেও কোনো মামলা করতে পারিনি। আমি এই ঘটনার বিচার চাই।’

অভিযুক্তের নাম সম্পর্কে পরীমনি বলেন, ‘তার নাম নাসির উদ্দিন আহমেদ। ঘটনার সময়ে তিনি নিজেকে বোট ক্লাবের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও পুলিশের উর্ধ্বতন এক কর্মকর্তার কাছের মানুষ হিসেবে পরিচয় দিয়ে হুমকি দেন।

রোববার রাতে করা এ সংবাদ সম্মেলনে বিধ্বস্ত অবস্থায় ছিলেন পরীমনি। তার চেহারায় ছিল অসুস্থতা ও আতঙ্কের ছাপ। চলে যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতে নায়িকা বলেন, ‘আমি আত্মহত্যা করার মেয়ে নই। আমি যদি মরে যাই, তাহলে আপনারা মনে করবেন আমাকে হত্যা করা হয়েছে।’

এ সময় পরীমনির সঙ্গে ছিলেন তার ‘বিশ্বসুন্দরী’ ছবির নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, পরী আমাকে মা ডাকে, সেই জায়গা থেকে আমি আমার সন্তানের কষ্ট বুঝি। আমি এই ঘটনার বিচার চাই। আমি চাই পরীমনি আবার ঘুরে দাঁড়াক।’

এদিকে, পরিমনির দেয়া স্ট্যাটাস ও অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) মীর সোহেল রানা বলেন, ‘পরীমনি অবশ্যই ন্যায়বিচার পাবেন। আমরা তার ন্যায়বিচারের জন্য কাজ করব। তবে কেন তিনি আইজিপি স্যারের নাম উল্লেখ করেছেন তা আমি বুঝতে পারছি না।’

সোহেল রানা দাবি করেন, ‘আমরা নিশ্চিত, পরীমনি মোটেই আইজিপি স্যারের সঙ্গে যোগাযোগ করেননি। আইজিপি স্যার সর্বদা নারী ও শিশুদের অধিকারের প্রতি অত্যন্ত শ্রদ্ধাশীল।

এর আগে রবিবার রাত ৮টার দিকে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে লম্বা একটি স্ট্যাটাস দিয়ে পরীমনি জানান, তাকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করা হয়েছে এবং ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে বিচার দাবি করেন এবং বাঁচার আকুতি জানান।